ভোট আসবে যাবে, তৃণমূল থেকেই যাবে : মমতা - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


ভোট আসবে যাবে, তৃণমূল থেকেই যাবে : মমতা

Share This
ভোট আসবে যাবে, তৃণমূল থেকেই যাবে : মমতা

আজ খবর (বাংলা), পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিমবঙ্গ, ০৫/০৩/২০২৪ : নিজের সরকার সম্বন্ধে আত্মবিশ্বাসী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গতকাল বলেন, 'ভোট আসবে, ভোট যাবে, কিন্তু বাংলা শাসন করবে তাঁরই দল'।

গতকাল পূর্ব মেদিনীপুরের গণপতি নগর থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, "পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসই ক্ষমতায় থাকবে। ভোটের আগে যারা দলের বিরুদ্ধে স্লোগান তুলছেন তাঁরা জেনে রাখুন যে, এই রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেসই ফের সরকার গড়বে এবং শাসনকাল চালিয়ে যাবে। রাজ্যে ভোট আসবে যাবে, কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেসই সরকার গড়ে তাদের শাসনকাল চালিয়ে নিয়ে যাবে।"


তিনি আরও বলেন, "ভোটের আগে কিছু মানুষকে প্রায়ই এই রাজ্যে নিয়মিত আসতে দেখা যায়. কিন্তু বছরের বাকি সময়গুলোতে তাদের আর দেখতে পাওয়া যায় না। কেউ মরে গেলেও আর তাদের দেখা মেলে না।" অভিযোগের তীর ছিল বিজেপির দিকে। এদিন জনসভায় মুখ্যমন্ত্রীকে ধামসা মাদল বাজাতে দেখা যায়, সেই সঙ্গে লোকগানের তালে তালে তাঁকে পা মেলাতেও দেখা গিয়েছে।

সভামঞ্চ থেকে মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন, "মেদিনীপুরের মাটি সর্বদা আমাদের লড়াইয়ের অনুপ্রেরণা জাগিয়ে এসেছে। এই জেলা আমাদের গর্ব, আন্দোলনের পীঠস্থান। এই মাটি বীর শহিদ ক্ষুদিরাম বসু, মাতঙ্গিনী হাজরা, সতীশ সামন্ত, সুশীল ধাড়া, বীরেন্দ্রনাথ শাসমল-এর মত অকুতোভয় স্বাধীনতা সংগ্রামী থেকে শুরু করে পণ্ডিত ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের চরণধূলিতে ধন্য। এই মাটিকে আমি নতমস্তকে প্রণাম জানাই।" 

গতকাল পূর্ব মেদিনীপুরের গণপতিনগরের জেলা প্রশাসনিক ময়দানের সভাস্থল থেকে মমতা বলেন, "মোট ৯৬০.৮৭ কোটি টাকা মূল্যের ৩৪৬টি প্রকল্পের শুভ উদ্বোধন করলাম, যার মধ্যে অন্যতম ভগবানপুরের ফুড স্টোরেজ গোডাউন নির্মাণ, শংকরপুরের মৎস বন্দরের আধুনিকরণ, কাঁথি ১ নং ব্লকে সাবস্টেশন নির্মাণ, নন্দীগ্রামে বাস টার্মিনাস নির্মাণ, হলদিয়ার খেলনা তৈরির ইউনিট গঠন, হলদিয়ার ৪৮টি কর্মজীবী মহিলা আবাসন নির্মাণ, পিছাবনির শহিদ স্মৃতি সৌধ নির্মাণ ইত্যাদি। এর ফলে উপকৃত হবেন প্রায় ৮০.৫ লক্ষ মানুষ। এছাড়াও, ১৪৭টি প্রকল্পের শুভ শিলান্যাস করলাম যার আর্থিক মূল্য ৪৭৬.৩১ কোটি টাকা। পাশাপাশি, অন্যান্য জেলায় মোট ১,৬৩৪.৫৪ কোটি টাকার বিভিন্ন জল প্রকল্প উদ্বোধন করা হল। এছাড়াও, আজকের এই সভামঞ্চ থেকে প্রায় ৭ লক্ষ ২০ হাজার মানুষের কাছে পৌঁছে গেল বিভিন্ন সরকারি জনকল্যাণমূলক পরিষেবা।" 

তিনি বলেন, "আমাদের সরকার সর্বদা সাধারণ মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করে চলেছে। দীর্ঘদিন ধরে ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান নিয়ে আবেদন করা সত্ত্বেও কেন্দ্রীয় সরকার তা উপেক্ষা করে গিয়েছে। তাই আমি কথা দিচ্ছি, আগামী ২-৩ বছরের মধ্যে সম্পূর্ণ মা-মাটি-মানুষের সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান সম্পন্ন হবে। মেদিনীপুরের এই পবিত্র মাটি আসলে জনজাগরণের মাটি, নবচেতনার মাটি‌। এই মাটি শিখিয়েছে কীভাবে দুর্বৃত্ত-দুরাত্মাদের সঙ্গে লড়াই করে, তাদের বিতাড়িত করতে হয়। আমি যতদিন বেঁচে আছি ততদিন এই বাংলার মানুষকে কোনও কষ্ট পেতে দেব না।"

Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages