পুলিশকে টাকা দিতে হবে, নাহলে বিচার পাব না করুণ আর্তি রক্ত বেচতে আসা গৃহবধূর - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


পুলিশকে টাকা দিতে হবে, নাহলে বিচার পাব না করুণ আর্তি রক্ত বেচতে আসা গৃহবধূর

Share This

পুলিশকে টাকা দিতে হবে, নাহলে বিচার পাব না করুন আর্তি রক্ত বেচতে আসা গৃহবধূর


আজ খবর (বাংলা), তারকেশ্বর, হুগলি, পশ্চিমবঙ্গ, 17/01/2022 : রক্ত বিক্রি করে টাকা জোগার করতে আসা শ্বশুরবাড়িতে অত্যাচারিত এক গৃহবধূর আর্তি নাড়িয়ে দিল সাধারন মানুষকে।

'পুলিশ কে টাকা দিতে হবে, না হলে বিচার পাবো না,' টাকা জোগাড় করতে তারকেশ্বর গ্রামীণ হাসপাতালে রক্ত বিক্রি করতে এসে এমনই মন্তব্য স্বামীর অত্যাচারে অত্যাচারিত হওয়া এক গৃহবধূর। সাত সকালেই এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে তারকেশ্বর গ্রামীণ হাসপাতালে। ঐ মহিলার আর্তি শুনে সরব হয়ে ওঠেন হাসপাতালে থাকা বেশ কিছু মানুষ। যদিও হাসপাতালের কর্মীরা তাঁকে বুঝিয়ে বাড়ি ফিরিয়ে দেন।

গৃহবধূর নাম মধুমিতা পাল, বাপের বাড়ি পাণ্ডুয়া থানা এলাকায়, বছর দশেক আগে পুরশুরা থানার ভাঙ্গামোড়া গ্রামের বাসিন্দা দিলীপ পালের সাথে বিয়ে হয় মধুমিতার।বিয়ের পর থেকেই বাপের বাড়ি থেকে টাকা আনার চাপ দিয়ে মারধোর থেকে মানসিক নির্যাতন চালাতো স্বামী সহ শ্বশুর বাড়ির লোকজনরা।

বর্তমানে দুই সন্তানের মা মধুমিতা। অত্যাচারের মাত্রা বাড়তে থাকায় গত বছর নভেম্বর মাসে পাণ্ডুয়া থানায় স্বামী সহ শ্বশুর বাড়ির বেশ কয়েক জনের নামে লিখিত অভিযোগ জানায় মধুমিতা। এর পর বার বার পাণ্ডুয়া এবং পুরশুরা দুই থানার দ্বারস্থ হয়েও কোনো ফল পাননি বলে অভিযোগ মধুমিতার। 

সুবিচার পাওয়ার জন্য পুলিশকে টাকা দিতে হয় বলেও অভিযোগ তাঁর। এমত অবস্থায় কোর্টের দ্বারস্থ হন মধুমিতা,  সেখানেও উকিলের জন্য লাগবে টাকা। তাই টাকা জোগাড় করার আর কোনো উপায় না পেয়ে তারকেশ্বর গ্রামীণ হাসপাতাল রক্ত বিক্রি করতে আসেন মধুমিতা।

রিপোর্ট : জীবন মন্ডল

Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages