বাংলার তাঁত শিল্পকে বাঁচিয়ে পদ্মশ্রী পেলেন বীরেন বসাক - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


বাংলার তাঁত শিল্পকে বাঁচিয়ে পদ্মশ্রী পেলেন বীরেন বসাক

Share This

বাংলার তাঁত শিল্পকে বাঁচিয়ে পদ্মশ্রী পেলেন বীরেন বসাক


আজ খবর (বাংলা), ফুলিয়া, নদীয়া, পশ্চিমবঙ্গ, 08/11/2021 : কলকাতার পথে পথে ঘুরে বেড়ানো একজন সাধারন শাড়ি বিক্রেতা থেকে আজ তিনি পদ্মশ্রী, অসাধারণ এক উত্থানের নায়ক বীরেন কুমার বসাক। বাঙালি হিসেবে আজ তিনি গর্ব করার মত মানুষ।

একটা সময় ছিল যখন বীরেনবাবু ও তাঁর ভাই বেশ কিছু শাড়ি নিয়ে ভোরবেলার ট্রেন ধরে চলে আসতেন কলকাতায়। শহরে এসে দুই ভাই রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে বাড়িতে বাড়িতে শাড়ি বিক্রি করতেন। সময়টা ছিল 1970 শাল। তখন মাত্র 1 টাকা পুঁজি নিয়ে ব্যবসা শুরু করেছিলেন বীরেন কুমার বসাক। শারীর দাম ছিল 15 টাকা থেকে 35 টাকার মধ্যে। লাভ হল শাড়ি প্রতি আড়াই টাকা অথবা 3 টাকা। এখন তাঁদের নিজস্ব তাঁতের কারখানায় কর্মী সংখ্যা 5000 পেরিয়েছে। বার্ষিক টার্নওভার 25 কোটি টাকার কিছু বেশিই হবে। 


1960 সালে বীরেনবাবুদের পরিবার বাংলাদেশের টাঙ্গাইল থেকে এদেশে চলে আসতে বাধ্য হয়েছিলেন। পেট চালাতে বীরেনবাবুকে পড়াশুনা ছেড়ে শাড়ি বিক্রি শুরু করতে হয়েছিল। ভাইকে সঙ্গে নিয়ে প্রতিদিন ভোরের ট্রেন ধরে তিনি কলকাতায় চলে আসতেন। তারপর এই রাস্তা ঐ রাস্তা ঘুরে ঘুরে দরজায় দরজায় শাড়ি বিক্রি করতেন। প্রচুর কষ্ট করে বড় হয়েছেন তিনি।

আজ তাঁর ক্রেতা হিসেবে কে নেই ? তাঁর ক্রেতা তালিকায় আছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি, সৌরভ গাঙ্গুলী, লতা মঙ্গেশকর, আশা ভোঁসলে, ওস্তাদ আমজাদ আলি খাঁ এরকম আরও অনেকে। একটা সময় তাঁর ক্রেতা ছিলেন সত্যজিত রায়, হেমন্ত মুখার্জির মত স্বনামধন্য মানুষরাও। 

বীরেন কুমার বসাক নিজেও একজন তাঁত শিল্পী। বর্তমানে 5000 তাঁত শিল্পী তাঁর কারখানায় কাজ করে রুজি রোজগার করছেন। এঁদের মধ্যে 2000 জন মহিলা শিল্পী। ফুলিয়া অঞ্চলে বহু শিল্পীকে রুজি রোজগার দিয়ে চলেছেন বীরেন কুমার বসাক। নিজে তাঁত শিল্পে শাড়ির ওপর রামায়ণ ফুটিয়ে তুলে ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছিলেন। শুধু তাই নয় সবচেয়ে লম্বা শাড়ি বানিয়ে তিনি গিনেস বুকেও নাম তুলেছিলেন। 

বীরেন কুমার বসাক এমন একজন শিল্পী যিনি সামান্য অবস্থা থেকে নিজে উঠে দাঁড়িয়েছেন এবং পাশাপাশি হাজার হাজার শিল্পীকে রুজি রোজগারের পথ করে দিচ্ছেন। তাঁকে দেখে অনুপ্রাণিত হচ্ছেন নতুন প্রজন্মের শিল্পীরাও। আর এভাবেই বাংলার তাঁত শিল্পকে ভালভাবে বাঁচিয়ে রাখার কাজ করে চলেছেন তিনি। এর আগে রাষ্ট্রপতি পুরস্কার পেয়েছিলেন, এবার তাঁকে পদ্মশ্রী দিয়ে সন্মানিত করল ভারত সরকার।

Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages