কালিম্পঙে বিনয় গোষ্ঠীর কার্যালয়ে ভাংচুর, অভিযোগের তীর বিমল পন্থীদের দিকে - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


কালিম্পঙে বিনয় গোষ্ঠীর কার্যালয়ে ভাংচুর, অভিযোগের তীর বিমল পন্থীদের দিকে

Share This

কালিম্পঙে বিনয় গোষ্ঠীর কার্যালয়ে ভাংচুর, অভিযোগের তীর বিমল পন্থীদের দিকে


আজ খবর (বাংলা), কালিম্পঙ, পশ্চিমবঙ্গ, ০৭/০১/২০২০ : রাজনীতি  নিয়ে ফের একবার উত্তপ্ত হয়ে উঠল পাহাড়। এবার কালিম্পঙে  গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার বিনয় তামাং গোষ্ঠীর জনসভা হওয়ার আগেই সেখানকার দলীয় কার্যালয় ভেঙ্গে  গুঁড়িয়ে দেওয়া হল। অভিযোগের তীর বিমল গুরুং গোষ্ঠীর দিকে। 

কালিম্পঙ শহরে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার একটি জনসভা হওয়ার ছিল, কিন্তু তার আগেই আজ ভোরবেলায় কালিম্পঙের ডম্বর চকে বিনয় তামাং গোষ্ঠীর দলীয় কার্যালয়ে তালা ভেঙ্গে ঢুকে ব্যাপক ভাংচুর চালানো হল। এই ঘটনায় কালিম্পঙ জুড়েই বেশ উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। অভিযোগের তীর বিমল গুরুং গোষ্ঠীর দিকে।

পাহাড়ে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চায় গোষ্ঠী বিভেদ এখন বিশাল আকার ধারণ করেছে। সরকারিভাবে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার দায়িত্বে রয়েছেন বিনয় তামাং এবং অনীক  থাপা।  উল্টোদিকে প্রায় সাড়ে তিন বছর অজ্ঞাতবাসে থাকার পর পাহাড়ে প্রত্যাবর্তন ঘটেছে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার প্রাক্তন সভাপতি বিমল গুরুং-এর। তাঁর সাথেই অজ্ঞাতবাস থেকে ফিরে এসেছেন রোশন গিরি। বর্তমানে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা কার্যত ভাগ হয়ে গিয়েছে বিনয় গোষ্ঠী এবং বিমল গোষ্ঠীর মধ্যে। দুই গোষ্ঠীই সমর্থন করছে রাজ্যের শাসক দলের সুপ্রীম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। কিন্তু দুই গোষ্ঠীর মধ্যে চরম বিবাদ ক্রমেই উত্তেজনার পারদ ছড়িয়ে দিচ্ছে পাহাড়ে। এর আগে পাহাড়ে ফিরে এসেই বিনয় তামাং ও অনীক  থাপাকে  চলে যাওয়ার ফতোয়া জারি করেছিলেন বিমল গুরুং।

কালিম্পঙে আজ দলীয় কার্যালয়ে  পুলিশে অভিযোগ করা হয়েছে। দলীয় কার্যালয়কে ব্যাপক চালানো হয়েছে। দরজার তালাও  ছিল ভাঙ্গা।  চেয়ার টেবিল আসবাব পত্র সবকিছু ছিল ভাঙা বস্তায়। রীতিমত তছনছ করে দেওয়া হয়েছে অফিস ঘরটিকে।গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।


Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages