২০২৩-২৪ সালের মধ্যে রাজ্যের সব বাড়িতে পানীয় জল দিতে কাজ শুরু করল কেন্দ্র - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


২০২৩-২৪ সালের মধ্যে রাজ্যের সব বাড়িতে পানীয় জল দিতে কাজ শুরু করল কেন্দ্র

Share This

২০২৩-২৪ সালের মধ্যে রাজ্যের  বাড়িতে পানীয় জল দিতে কাজ শুরু করল কেন্দ্র


আজ খবর (বাংলা), নতুন দিল্লী, ভারত, ০৮/০১/২০২১` : জাতীয় জল জীবন মিশনের ৮ সদস্যের একটি দল গত ৫ তারিখ থেকে পশ্চিমবঙ্গ সফর করছে। জল জীবন মিশনের আওতায় রাজ্যকে কারিগরি সহায়তা দেওয়ার জন্য তাদের ৪ দিনের এই সফর। সফরকালে এই কর্মসূচি বাস্তবায়নের সময় বিভিন্ন সমস্যা চিহ্নিত করে সেগুলি সমাধানে সহায়তা করাও প্রতিনিধি দলের উদ্দেশ্য।

প্রতিনিধি দলটি পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, নদীয়া, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, বাঁকুড়া, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান সফর করছে। দলের সদস্যরা জল সরবরাহ প্রকল্পে যুক্ত তৃণমূল স্তরের আধিকারিক, গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান, গ্রাম জল ও পয়ঃনিষ্কাশন কমিটির (জল সমিতি) সদস্য এবং এই প্রকল্পের উপভোক্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করছেন। তাঁরা জেলা, জল ও পয়:নিষ্কাশন মিশনের চেয়ারপার্সনের সঙ্গে বৈঠক করছেন। জেলা কালেক্টর পদাধিকার বলে এই মিশনের চেয়ারপার্সন। বৈঠকে প্রকল্প রূপায়ণের বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানানোর পাশাপাশি, কিভাবে এই প্রকল্পকে দ্রুত বাস্তবায়িত করা যায়, তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গ ২০২৪ সালের মধ্যে গ্রামাঞ্চলের প্রতিটি বাড়িতে নল বাহিত জল সরবরাহ করতে উদ্যোগী হয়েছে।  জল মিশনের আওতায় কেন্দ্রীয় এই প্রকল্পে রাজ্যকে সাহায্য করতে সরকার অঙ্গীকারবদ্ধ। এর আগে গত মাসেও ৪ জন সদস্যের আরেকটি দল কারিগরি সহায়তার জন্য রাজ্য সফর করেছিল।

পশ্চিমবঙ্গের গ্রামাঞ্চলে ১.৬৩ কোটি বাড়ি রয়েছে, যার মধ্যে ৭.৬১ লক্ষ বাড়িতে জল সংযোগ পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। ২০২৩-২৪ সালের মধ্যে বাকি বাড়িগুলিতেও জল সংযোগ পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। জাতীয় জল জীবন মিশনের কাজ রাজ্যে পুরোদমে চলছে। ২০২০-২১ অর্থবর্ষে কেন্দ্রের ২ হাজার ৭৬০ কোটি ৭৬ লক্ষ টাকা রাজ্যকে দেওয়ার অঙ্গীকার করা হয়েছে। এর মধ্যে আগের বছরের খরচ না হওয়া ১ হাজার ১৪৬ কোটি ৫৮ লক্ষ টাকাও রয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে জল জীবন মিশনের আওতায় রাজ্য সরকারের অংশের টাকার  সঙ্গে কেন্দ্রের তহবিল যোগ করলে মোট ৫ হাজার ৭৭০ কোটি টাকার তহবিলের সংস্থান রয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গ পঞ্চদশ অর্থ কমিশন থেকে পঞ্চায়েতগুলির জন্য ৪ হাজার ৪১২ কোটি টাকা পাবে। এর মধ্যে ৫০ শতাংশ অর্থ ব্যয় করতে হবে জল ও পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থায়। এমজিনারেগা, জল জীবন মিশন, এসবিএম (জি), পঞ্চদশ অর্থ কমিশনের পিআরআই – এর জন্য তহবিল, জেলা খনিজ উন্নয়ন পর্ষদ, ক্যাম্পা, কর্পোরেট সামাজিক দায়বদ্ধতা তহবিল, স্থানীয় উন্নয়ন তহবিল থেকে প্রাপ্ত অর্থ জল সংরক্ষণের কাজে ব্যবহার করা হবে। এখানে পানীয় জলের চাহিদা পূরণ করা হবে।

জল জীবন মিশন গ্রামাঞ্চলের মানুষের জীবনযাত্রার পরিবর্তন ঘটায়। নিয়মিত ও দীর্ঘমেয়াদী ভিত্তিতে বাড়ি বাড়ি নলের মাধ্যমে জল পৌঁছে দেওয়ার এই উদ্যোগ সহযোগিতামূলক ফেডারালিজমের উদাহরণ। সহজ জীবনযাত্রা এবং মহিলা ও নাবালিকাদের কষ্ট এর ফলে লাঘব হচ্ছে। সাম্য ও সমন্বয়ের মাধ্যমে সকলের কাছে এই পরিষেবা পৌঁছে দেওয়া এই কর্মসূচির অঙ্গ।
Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages