জয় শ্রীরামের নামে মমতাকে অসম্মান করায় রাজনৈতিক মহলে নিন্দার ঝড় - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


জয় শ্রীরামের নামে মমতাকে অসম্মান করায় রাজনৈতিক মহলে নিন্দার ঝড়

Share This

জয় শ্রীরামের নামে মমতাকে অসম্মান করায় রাজনৈতিক মহলে নিন্দার ঝড়


আজ খবর (বাংলা), কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ, ২৩/০১/২০২১ :
নেতাজির জন্মজয়ন্তীতে সরকারি অনুষ্ঠানে অসম্মানিত হয়ে বক্তব্য রাখতে চাইলেন না মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

মমতা যখন মঞ্চে উঠছেন, ঠিক তখনি কেউ কেউ চিৎকার করে বলে উঠে বললেন, "জয় শ্রীরাম"। এতেই ক্ষুব্ধ মমতা মঞ্চে উঠে জানিয়ে দিলেন তিনি বক্তব্য রাখবেন না। মঞ্চে উঠে মমতা বলেন, "কাউকে আমন্ত্রণ করে অসম্মান করাটা ঠিক নয়। আমার তো মনে হচ্ছে, এটা একটা রাজনৈতিক সভা। কিন্তু তা তো আদৌ নয় ! এটা একটা সরকারি সভা ! আমি প্রধানমন্ত্রীকে ও সংস্কৃতি মন্ত্রককে ধন্যবাদ জানাচ্ছি এই অনুষ্ঠান কলকাতায় করার জন্যে। তবে আমাকে এখানে আমন্ত্রণ জানিয়েও অসম্মান করার প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আমি আর একটা কথাও বলব না। জয় হিন্দ, জয় বাংলা।" এই কথাগুলি বলে মঞ্চ থেকে নেমে যান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রতিবাদী মমতাকে সামনে থেকে দেখলেন নরেন্দ্র মোদী। 

মমতার এই অসম্মান দেখে তৃণমূল মুখপাত্র কুনাল ঘোষ বলেন, "প্রধানমন্ত্রীর সামনেই মুখ্যমন্ত্রীকে অসম্মান করা হয়েছে,  অথচ প্রধানমন্তী এই ব্যাপারে নিশ্চুপ রইলেন। তাঁর উচিত ছিল প্রকাশ্যে ক্ষমা চেয়ে নেওয়া।"  বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় অবশ্য বলেন, "জয় শ্রীরাম ধ্বনি কাউকে অপমানিত করে না।  জয় শ্রীরাম ধ্বনিতে অপমানিত হন মমতা, এটা কি ধরনের রাজনীতি ?"  তৃণমূল নেতা ব্রাত্য বসু বলেন, "সব ব্যাপারে 'জয় শ্রীরাম' বলাটা এই রাজ্যের সংস্কৃতি নয়। নেতাজির সাথে রামের কি সম্পর্ক ? এইভাবে  ইচ্ছাকৃতভাবে মুখ্যমন্ত্রীকে অবমাননা করা হল।"

বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য্য বলেন, "ঘটনাটি সমর্থনযোগ্য নয়, এটা  কাঙ্খিত নয়। অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। এটা মনে হয় করাটা ঠিক হয় নি, বিশেষ করে নেতাজির জন্মজয়ন্তীতে।" তৃণমূল নেতা সৌগত রায় বলেন, "ইচ্ছে করেই অবমাননা করা হয়েছে মুখ্যমন্ত্রীকে। এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।"  কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী বলেন, "জয় শ্রীরাম বলে শ্রীরামকে তো আর সন্মান জানানো হয় নি, মমতা ব্যানার্জিকে অসম্মান করা হয়েছে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে। এটা  সকলের মনে রাখা উচিত যে তিনি বাংলার মুখ্যমন্ত্রী, তাঁর সন্মান আছে। তাছাড়া তিনি একজন মহিলা, এভাবে কোনো একজন মহিলাকে অসম্মান করা যায় না।আমি এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করছি।"

তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চ্যাটার্জি বলেন, "এই ঘটনা অত্যন্ত নিন্দনীয়, পূর্ব পরিকল্পিত। যেভাবে নেতাজিকে সামনে রেখে সরকারি অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর সামনে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে অপমান করা হল, সেটা বাংলার মানুষ কোনোদিন ক্ষমা করবে না।" এদিকে আজ রেড রোডের অনুষ্ঠানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আজ দাবী তোলেন, দেশে চারটি রাজধানী থাকা উচিত। রিনি মনে করেন, সংসদের অনুষ্ঠান ঘুরিয়ে ফিরিয়ে চার জায়গাতেই হওয়া উচিত। চার রাজধানীর মধ্যে কলকাতাতেও রাজধানী হোক সেটাই চেয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages