বিজেপি মাওবাদীদের থেকেও ভয়ঙ্কর : মমতা - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


বিজেপি মাওবাদীদের থেকেও ভয়ঙ্কর : মমতা

Share This

বিজেপি মাওবাদীদের থেকেও ভয়ঙ্কর : মমতা
জনসভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 

আজ খবর (বাংলা), পুরুলিয়া, পশ্চিমবঙ্গ, ১৯/০১/২০২১ :  আজ পুরুলিয়ায় জনসভা থেকে বিজেপিকে আক্রমন করে পুরুলিয়ার মানুষকে সতর্ক করলেন তৃণমূল সুপ্রীমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপির বিরুদ্ধে পুরুলিয়ার মানুষকে তিনি রুখে দাঁড়ানোর বার্তা দিলেন। 

পুরুলিয়ার জনসভা মঞ্চ থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাধারণ মানুষকে স্বাস্থ্য সাথী কার্ড করানোর জন্যে আবেদন করে বলেন,  "স্বাস্থ্যসাথী কার্ড একটি সুরক্ষার মত। এই কার্ড দিয়ে সারা জীবন উপকার পাবেন। এটা সারা জীবনের কার্ড। প্রতি বছর এই কার্ড দিয়ে প্রতি বছর ৫ লক্ষ টাকার চিকিৎসা পাবেন।" মমতা বলেন, "আমি কৃষকদের জন্যে অনেক কাজ করেছি। আমরা নতুন একটা প্রকল্পের মাধ্যমে মাটি ও ফসল বাঁচানোর কাজ করছি। চাষের জমিতে রাজস্ব বা খাজনা নেওয়া হয় না। এই জেলায় পরিযায়ী শ্রমিকদের অনেক কাজ দেওয়া হয়েছে। ডানকুনি-অমৃতসর ফ্রেট করিডোরে নতুন ইন্ডাস্ট্রি তৈরি  করা হবে। প্রচুর পরিমাণে কর্ম সংস্থান হবে। জয়পুরে ইন্ডাস্ট্রিয়াল হাব হবে। ইতিমধ্যেই প্রচুর পরিমাণে সাঁওতালি শিক্ষক নিয়োগ করা হয়েছে। সবুজ সাথী প্রকল্পে সাইকেল দেওয়ার কাজ দ্রুত সেরে ফেলা হবে।এগারো ও বারো ক্লাসের পড়ুয়ারা যাতে অনলাইনে ক্লাস করতে পারে, তার জন্যে আগামীকাল বা পরশুর মধ্যে তাদের একাউন্টে ১০ হাজার করে টাকা দিয়ে দেওয়া হবে।"

মমতা এরপর বিজেপিকে আক্রমন করে বলেন, "গুজরাট, দিল্লী থেকে এখানে এসে বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে বলছে, 'তোমাদের বাড়িতে খাব', পয়সা আমাদের। কেন ? দলিতের বাড়িতে এসে সেইসব খাবার খাও। যেগুলো সেই পরিবার  খাচ্ছে, তা নয়, ওরা খাবে পাঁচতারা হোটেলের খাবার। গরীব মানুষ ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে খাওয়াতে গিয়ে সমস্যায় পড়েছে, এমনটাও খবর পেয়েছি। এরকম হলে আমাদের কর্মীরা যেন পকেট থেকে টাকা দিয়ে তাঁদের সাহায্য করেন। অযোধ্যায়, বাগমুন্ডিতে, মানভূমে যখন রক্ত  ঝরেছিল,তখন কোথায় ছিল এই বিজেপি ? এখন পুরুলিয়া সুখে আছে, তাই ওদের ভাল লাগছে না। ওরা ভোটের আগে টাকা দিতে আসে, সেই টাকা নিয়ে ভাল করে মাংস ভাত খেয়ে নেবেন, কিন্তু ভোট দেবেন না। বিজেপির চমকানিতে ভয় পাবেন না। বিজেপির জোচ্চুরিকে বিশ্বাস করবেন না। বিজেপি এলে রূপসী বাংলা থাকবে না। মাওবাদী ফিরে আসবে। বিজেপি মাওবাদীদের থেকেও বেশি ভয়ংকর। ওরা মিথ্যে বলে, ভোট নিয়ে পালায়। বাইরে থেকে লোক এলে তাড়িয়ে দিন।  বিজেপির অত্যাচার থামিয়ে দিন।"

আজ মমতার সভা চলাকালীন কিছু মানুষ নিজেদের আবেদন চেয়ে তাঁর দৃষ্টি আকর্ষণ করার চেষ্টা করলে ছেদ পড়ে  যায় মমতার ভাষণে। কার্যত তাঁকে বিরক্ত দেখায়। মমতা বলেন, "আমার প্রত্যেক সভায় ১ লক্ষ লোকের মধ্যে জনা দশেক লোক গন্ডগোল পাকাতে চায়। এদেরকে বিজেপি শিখিয়ে পাঠায়। এবার এমনটা হলে আমি কিন্তু ব্যবস্থা নেব। আপনার হাজারটা ব্যক্তিগত সমস্যা  থাকতে পারে, কিন্তু সেই সমস্যার জন্যে আপনি পাবলিক মিটিং থামিয়ে দিতে পারেন না।এরপর আমিও বিজেপি বা সিপিএম-এর মিটিং-এ লোক পাঠিয়ে দেব। যতই দাও না কেন, কিছু লোকের যেন আরও চাই, আরও চাই। সরকারের যে দেওয়ার একটা সামর্থ আছে সেটা তো বুঝতে হবে ?  একেকটা পরিবার ৫/৬টা করে সুযোগ সুবিধা পাচ্ছে। আমি যা বলি তাই করি। আমি সকলের জন্যে হৃদয় নিংড়ে কাজ করি।" যদিও এরপর ভাষণ দিতে দিতেই মমতা বক্তব্য থামিয়ে মঞ্চ থেকে একজন প্রতিনিধিকে পাঠিয়ে আবেদনকারীদের বক্তব্য লিখিতভাবে সংগ্রহ করেন এবং বলেন, "আপনাদেরকে একটু বকেছি, মনটা খারাপ হয়ে গেল। কিছু মনে করবেন না। আমি তো আপনাদের পরিবারেরই লোক। আমি আপনাদের সমস্যাগুলো দেখছি।"



Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages