প্রাক্তন মূখ্যমন্ত্রী এবং প্রাক্তন বিধায়কের লেটারহেড ছাপিয়ে রাখুন : শুভেন্দু অধিকারী - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


প্রাক্তন মূখ্যমন্ত্রী এবং প্রাক্তন বিধায়কের লেটারহেড ছাপিয়ে রাখুন : শুভেন্দু অধিকারী

Share This

প্রাক্তন মূখ্যমন্ত্রী এবং প্রাক্তন বিধায়কের লেটারহেড ছাপিয়ে রাখুন : শুভেন্দু অধিকারী
হেঁড়িয়ার  জনসভায় ভাষণ দিচ্ছেন শুভেন্দু অধিকারী 


আজ খবর (বাংলা),খেজুরি, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিমবঙ্গ, ১৯/০১/২০২১ : গতকাল নন্দীগ্রামের তেখালিতে জনসভা করেছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, আর আজ তার পাল্টা হিসেবে মমতার জনসভা থেকে ১৫ কিলোমিটার দূরে খেজুরির হেঁড়িয়ায় জনসভা করলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। ওই মঞ্চেই আজ উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় এবং বিজেপি নেত্রী লকেট চ্যাটার্জি।

প্রথমে লকেট চ্যাটার্জি নিজের বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন, "নন্দীগ্রামে শহীদ হত্যার দায়ে অপরাধীদের শাস্তি হয়নি। বরং সেই দোষীদের মধ্যে থেকেই একজনকে দলে জায়গা করে দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী।" লকেট স্লোগান তোলেন, "আওয়াজ তুলছে নন্দীগ্রাম, মমতা তুমি বেইমান", "নন্দীগ্রাম তুলছে ডাক, মমতা এবার বাড়ি যাক"। লকেট বলেন, "মমতা বন্দোপাধ্যায় ভয় পেয়েছেন, তাই ভবানীপুর ছেড়ে নন্দীগ্রামে ভোটে দাঁড়াতে চাইছেন। গতকাল তিনি বলেছেন, তিনি নাকি সব ঘরে পানীয় জল পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করছেন। অথচ সেই প্রকল্পটি প্রধানমন্ত্রীর প্রকল্প, 'নল সে জল'। উনি নাকি সবাইকে চাকরি দেবেন ? ভোট ফুরোলে সেই চাকরি শুধু তৃণমূল নেতারাই পাবেন ! সবাই তৃণমূল ছেড়ে চলে যাচ্ছেন। এক সময় দেখবেন, পিসি আর ভাইপো ছাড়া আর কেউ ওই দলে নেই। ২০২১শে  পদ্ম ফুটবে বাংলার সর্বত্র।"

আজ শুভেন্দু অধিকারীর সভায় যেতে গিয়ে বিভিন্ন জায়গায় আক্রান্ত হতে হয়েছে বিজেপি সমর্থকদের। বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে  সেইসব সমর্থকদের আটকানো হয়েছে। বেশ কিছু জায়গায় তাঁদের ওপরে আক্রমন চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিজেপি। কাঁথিতে বিজেপি কর্মীদের বাসে ভাংচুর চালানোর অভিযোগে পথ অবরোধ করেছিলেন বিজেপি সমর্থকেরা। খেজুরিতেও মিছিল ও পাল্টা মিছিলকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। বিজেপির অভিযোগের তীর তৃণমূলের দিকে। তাঁদের অভিযোগ তৃণমূলের দুষ্কৃতীদের হামলায় আজ বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী আহত হয়েছেন। আহত কর্মীদের দেখতে যাবেন বলে আজকের জনসভায় সংক্ষিপ্ত ভাষণ দেন শুভেন্দু অধিকারী।

হেঁড়িয়ার জনসভায় বক্তব্য রাখছেন লকেট চ্যাটার্জি 

খেজুরির হেঁড়িয়ার জনসভা থেকে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, "মোট ৫ জায়গায় হামলা চালানো হয়েছে। সবরকম প্রতিকূলতা সত্ত্বেও হেঁড়িয়াতে আজ জনসভা হচ্ছে। নন্দীগ্রামের নিহত ও নিখোঁজ ৩০টি পরিবার আজ আমাদের এসেছেন, তাঁদেরকে প্রণাম জানাচ্ছি। গতকাল তেখালিতে তৃণমূলের জনসভাকে আসাউদ্দিন ওয়াইসির জনসভা বলে মনে করি। গতকাল মাননীয়াকে উদ্ভ্রান্ত এবং হতাশাগ্রস্ত বলে মনে হয়েছে। তাঁর আত্মা নাকি নন্দীগ্রামে পড়ে রয়েছে। আর তাঁর মনটা পড়ে  আছে কলকাতায় ! ক্লাস এইটের বইতে দেখলাম সিঙ্গুর আন্দোলনের কথা লেখা আছে। কিন্তু নন্দীগ্রামের কথা লেখা নেই। আসলে নন্দীগ্রামের আন্দোলনের কথা উনি মানেন না। এদিকে সিঙ্গুরে আপনার ঘাসফুলকে টা  টা  বাই বাই করে দিয়েছেন লকেট চ্যাটার্জি।"

শুভেন্দু অধিকারী আরও বলেন, "নন্দীগ্রাম এবং ভবানীপুর দুই জায়গা থেকেই ভোটে দাঁড়াবেন ? আমি চ্যালেঞ্জ করছি, সেটা হতে দেব না। আপনাকে নন্দীগ্রাম থেকেই দাঁড়াতে  হবে। নন্দীগ্রামে আপনি কাদের ভরসায় জিতবেন ? ৬২ হাজারের ভরসায় ? আর পদ্ম জিতবে ২ লক্ষ ১৩ হাজারের ভরসায়। আপনি গতকাল এক ঘণ্টা ধরে নন্দীগ্রামে কি বলেছেন, সে সব শুনিনি। কে শুনবে ? সব তো মিথ্যা কথা ! এখন থেকেই প্রাক্তন মূখ্যমন্ত্রী এবং প্রাক্তন বিধায়কের লেটারহেড ছাপিয়ে রাখুন। মমতা হারবে, হারবে, হারবে, হারবে। বিজেপি সরকার আসবে, তখন মিথ্যাশ্রী পুরস্কার দেবে মাননীয়াকে, আর তোলাশ্রী  পুরস্কার দেবে ভাতুষ্পুত্রকে।"



Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages