একুশে বিজেপি আসছে, ১০ বছরের জন্য ওয়েটিংএ যান :শুভেন্দু - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


একুশে বিজেপি আসছে, ১০ বছরের জন্য ওয়েটিংএ যান :শুভেন্দু

Share This

একুশে বিজেপি আসছে, ১০ বছরের জন্য কম্পালসারি ওয়েটিংএ যান :শুভেন্দু  


আজ খবর (বাংলা), কাঁথি, পূর্ব মেদিনীপুর, ২৪/১২/২০২০ : আজ পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথি বাস স্ট্যান্ডে ছিল তৃণমূল থেকে বিজেপিতে সদ্য যোগ দেওয়া শুভেন্দু অধিকারীর প্রথম জনসভা। এই জনসভাকে ঘিরে রাজ্যের মানুষ যথেষ্ট উৎসুক ছিলেন। গতকাল কাঁথিতে তৃণমূল নেতা সৌগত রায় এবং ফিরহাদ হাকিম শুভেন্দু অধিকারীকে ব্যাপক আক্রমন করে গিয়েছিলেন, তাই আজ সেই আক্রমনের প্রতি আক্রমন হিসেবে শুভেন্দু কি উত্তর দেন, তা দেখার জন্যেই রাজ্যের মানুষের চোখ ছিল এই জনসভার দিকে। 

কাঁথি বাইপাস থেকে বাস স্ট্যান্ড পর্যন্ত প্রায় আড়াই কিলোমিটার পথে আজ শুভেন্দু অধিকারী বিশাল রোড শো করেন। সেই রোড শোয়ে হাজার হাজার মানুষ অংশগ্রহণ করেছেন। সেই প্রসঙ্গ টেনেই আজ জনসভার মঞ্চ থেকে শুভেন্দু অধিকারী মন্তব্য করেন, "সাধারণ মানুষ আজ যেভাবে রাস্তায় বেরিয়ে এসেছেন, আমি নিশ্চিন্ত হলাম, আমার সিদ্ধান্ত ভুল ছিল না। কেননা মানুষই শেষ কথা বলে। আমি জনগণের সিলমোহর পেয়ে গিয়েছি।"

শুভেন্দু অধিকারী বলেন, "আমি সব পদ, মন্ত্রীত্ব, বিধায়ক পদ সব কিছু ছেড়ে দিয়ে এসেছি, আর আমাকে বলছে বিশ্বাস ঘাতক ? কে বলছে ? যে কিনা পাকিস্তানের সাংবাদিককে ডেকে কলকাতাকে দেখিয়ে বলে মিনি পাকিস্তান ? আর একজন অধ্যাপক, যাঁকে আমি এখনো শ্রদ্ধা করি, যাঁকে গত সাড়ে ৯ বছর তাঁদের দল পাত্তাই দেয়নি। তিনি বলছেন কটু কথা ! আমি কিন্তু খারাপ কথা বলতে  পারব না। আমি বিদ্যাসাগরের দেশের মানুষ।"

শুভেন্দুবাবু এরপর তৃণমূলের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে বলেন,"বিজেপি  আসছে, দশ বছরের জন্যে আপনাদেরকে কম্পালসারি ওয়েটিংএ .যেতে হবে। আমাকে ভয় দেখিয়ে লাভ নেই। আমি গ্রামের ছেলে, পান্তা ভাত খাওয়া ছেলে, নন্দীগ্রাম করা ছেলে, কিষেণজির সাথে লড়াই করা ছেলে। আমার জন্যে  পায়ে কাঁটা বিঁধছে ! আপনাদের অমিত মিত্র কাউকে চাকরি দিতে পারে নি, এখন পাউচ বেচছে।". 

এরপর শুভেন্দু অধিকারী সরাসরি অভিযোগ করে বলেন, "তোলাবাজ, কাটমানি খাওয়া ভাইপো, এনামুল তো জেলে রয়েছে এবার কি করবে ? এবার কি কিডনি পাচার করবে ? ভাইপোর ডায়মন্ড হারবারে জোড়া মেডিকেল কলেজ হয়, আর কাঁথি একটাও মেডিকেল কলেজ পায় না। অথচ এখানে একটা মেডিকেল কলেজ করার কথা ছিল।"

এরপর সরাসরি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে শুভেন্দু বলেন, "বালুমাটি লালমাটি মিলে গেছে। আমি মেদিনীপুরের প্রশাসনিক ভাগ পপছন্দ করি না। আমি আর দিলীপ ঘোষ মিলে জঙ্গলমহলের ৩৫ টা আসনেই আপনাদের হারাব। শুনলাম আপনি আগামী মাসের ৭ তারিখে নন্দীগ্রামে সভা করতে আসবেন, আপনি তো হাটবারে আসেন না কখনো ? যাই হোক আমি বলে রাখছি, আপনি ৭ তারিখের সভায় যা কিছু বলে যাবেন, আমি তার পরের দিন নদীগ্রামেই সভা করে আপনার সব প্রশ্নের উত্তর দিয়ে যাব। আপনি সরকারি ক্ষমতায় লোক আনবেন। আমি ভালবাসা দিয়ে লোক আনব। একুশে বিজেপি বাংলায় ক্ষমতায় আসবেই। পদ্ম ফুটিয়েই ছাড়ব।"

Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages