মাঝেরহাট ব্রীজ খোলা নিয়ে বিজেপির বিক্ষোভকে ঘিরে ধুন্ধুমার - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


মাঝেরহাট ব্রীজ খোলা নিয়ে বিজেপির বিক্ষোভকে ঘিরে ধুন্ধুমার

Share This


আজ খবর (বাংলা), মাঝেরহাট, কলকাতা,  পশ্চিমবঙ্গ, ২৬/১১/২০২০ :  অবিলম্বে মাঝেরহাট ব্রীজ খোলার দাবীতে তারাতলা  অঞ্চলে বিজেপির বিক্ষোভকে ঘিরে ধুন্ধুমার কাণ্ড ঘটে গেল। 

মাঝেরহাট ব্রীজ অবিলম্বে খোলার দাবী নিয়ে আজ বেশ কিছু বিজেপি কর্মী মাঝেরহাট ব্রীজ সংলগ্ন তারাতলা  অঞ্চলে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করলে সেখানে পুলিশ বাহিনী চলে আসে। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসেই বিক্ষোভকারীদের হঠিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। এই সময় বিজেপি কর্মীদের সাথে পুলিশের ধ্বস্তাধস্তি বেঁধে যায়। এরপর পুলিশ মৃদু লাঠিচার্জ করে বেশ কিছু বিজেপি সমর্থককে আটক করে। ঘটনাস্থলে এসে হাজির হন বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

পুলিশ কৈলাস বিজয়বর্গীয়কেও প্রথমে আটক করে নিউ আলিপুরে দাঁড়িয়ে থাকা একটি মিনিবাসে তোলে। উপস্থিত বিজেপি কর্মীরা সেই সময় মুহুর্মুহু শ্লোগান দিতে থাকেন। এরপর পুলিশের সিনিয়ার আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে এসে কৈলাস বিজয়বর্গীয়র সাথে কথাবার্তা বলতে থাকেন এবং জানান কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে পুলিশ আটক  বা গ্রেপ্তার করছে না। এর পর কৈলাস বিজয়বর্গীয় বিজেপির সব কর্মীকে ছেড়ে দেওয়ার দাবী জানান। আটক করা বিজেপি কর্মীদের নিয়ে পুলিশের ভ্যান ততক্ষণে লাল বাজার পৌঁছে গিয়েছে। আটক করা সব কর্মীকে ছেড়ে দেওয়ার আশ্বাস পাওয়ার পরেই কৈলাশ বিজয়বর্গীয় মাঝেরহাট এলাকা ছেড়ে চলে যান ।

বিজেপির এই মাঝেরহাট বিক্ষোভ নিয়ে বিভিন্ন মহলে ইতি মধ্যেই সমালোচনা হতে শুরু করেছে। কারন বিজেপির দাবী ছিল অবিলম্বে মাঝেরহাট ব্রীজ খুলতে হবে। এদিকে গতকালই রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস মাঝেরহাট ব্রীজ পরিদর্শন করে মাঝেরহাট ব্রীজ যে ডিসেম্বরের প্রথম দিকে খুলে দেওয়া হবে তা সাংবাদিকদের জানিয়ে গিয়েছেন। তারপরেও একই দাবীতে বিজেপি বিক্ষোভ করল।  শুধু তাই নয়, আজ বামেদের ডাকা ধর্মঘটের দিনেই এই বিক্ষোভ কতটা ফলপ্রসূ হল, তা নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে। যেহেতু আজকের ধর্মঘটের তীর কেন্দ্রে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে, তাই ধর্মঘটের দিনেই এই বিক্ষোভ কি আদৌ ভালভাবে নেবেন সাধারন মানুষ ? তাছাড়া বিজেপি বলছে এটা তাদের ঘোষিত কর্মসূচী, অথচ পুলিশ বলছে এই কর্মসূচীর জন্যে কোনো আগাম অনুমতি বিজেপি নেয় নি।

বিজেপির এই মাঝেরহাট বিক্ষোভ নিয়ে বিভিন্ন মহলে ইতি মধ্যেই সমালোচনা হতে শুরু করেছে। কারন বিজেপির দাবী ছিল অবিলম্বে মাঝেরহাট ব্রীজ খুলতে হবে। এদিকে গতকালই রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস মাঝেরহাট ব্রীজ পরিদর্শন করে মাঝেরহাট ব্রীজ যে ডিসেম্বরের প্রথম দিকে খুলে দেওয়া হবে তা সাংবাদিকদের জানিয়ে গিয়েছেন। তারপরেও একই দাবীতে বিজেপি বিক্ষোভ করল।  শুধু তাই নয় আজ বামেদের ডাকা ধর্মঘটের দিনেই এই বিক্ষোভ কতটা ফলপ্রসূ হল, তা নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে। যেহেতু আজকের ধর্মঘটের তীর কেন্দ্রে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে, তাই ধর্মঘটের দিনেই এই বিক্ষোভ কি আদৌ ভালভাবে নেবেন সাধারন মানুষ ? তাছাড়া বিজেপি বলছে এটা তাদের ঘোষিত কর্মসূচী, অথচ পুলিশ বলছে এই কর্মসূচীর জন্যে কোনো আগাম অনুমতি বিজেপি নেয় নি। (দেখুন ভিডিও)

Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages