ভারত গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে সফলভাবে গ্রহণ করেছে, যখন অনেক প্রতিবেশী রাষ্ট্র তা করতে ব্যর্থ হয়েছে - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


ভারত গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে সফলভাবে গ্রহণ করেছে, যখন অনেক প্রতিবেশী রাষ্ট্র তা করতে ব্যর্থ হয়েছে

Share This

ভারত গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে সফলভাবে গ্রহণ করেছে, যখন অনেক প্রতিবেশী রাষ্ট্র তা করতে ব্যর্থ হয়েছে


আজ খবর (বাংলা), নতুন দিল্লী, ভারত, ২৬/১১/২০২০ : "ভারত গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে সফলভাবে গ্রহণ করেছে যখন অনেক প্রতিবেশী রাষ্ট্র তা করতে ব্যর্থ হয়েছে,"  বলছেন বিচারপতি চিত্ততোষ মুখোপাধ্যায়

সংবিধান দিবসের প্রাক্কালে সাংবিধানিক দায়বদ্ধতা ও নাগরিকদের কর্তব্য শীর্ষক একটি ওয়েবিনারের আয়োজন করেছিল কলকাতার প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো, রিজিওন্যাল আউটরিচ ব্যুরো এবং চুঁচুড়ার ফিল্ড আউটরিচ ব্যুরো। এই অনুষ্ঠানে কলকাতা ও বম্বে হাইকোর্টের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি চিত্ততোষ মুখোপাধ্যায় বলেছেন, ‘আমাদের দেশের সংবিধান তখনই রক্ষা পাবে যখন রাজনৈতিক ও সামাজিক সাম্য বজায় থাকবে এবং সব নাগরিকদের মধ্যে ভ্রাতৃত্ব বোধ গড়ে উঠবে।‘ ভারতীয় সংবিধানের ঐতিহাসিক মূল্যায়ণের প্রসঙ্গে বিচারপতি মুখোপাধ্যায় স্পষ্ট করে বলেছেন, গণতন্ত্রের মূল হল সংবিধান। আমরা গণতন্ত্রকে সফলভাবে এগিয়ে নিয়ে চলেছি যখন আমাদেরই প্রতিবেশী রাষ্ট্রগুলি তা করতে ব্যর্থ হয়েছে। তিনি বলেছেন, আমাদের বিচার ব্যবস্থা অত্যন্ত শক্তিশালী। সাংবিধানিক অধিকার ও সাধারণ মানুষের অধিকার এখানে সুরক্ষিত  হয়। বিচারপতি মুখোপাধ্যায় আরও বলেছেন রাজনৈতিক ও সামাজিক সদিচ্ছায় আমাদের সংবিধান সুরক্ষিত।  

বিশিষ্ট শিক্ষাবীদ, নেতাজী সুভাষ মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য অধ্যাপক ডঃ রাধা রমণ চক্রবর্তী বলেছেন, সমস্ত নাগরিকদের দেশের আইন মেনে চলতে হবে। তিনি বলেছেন, সংবিধানই হল দেশের আইন এবং মৌলিক অধিকার ও নাগরিকদের কর্তব্যের বিষয়টির  এখান থেকে স্পষ্ট ধারণা পাওয়া যায়। ডঃ চক্রবর্তী শিক্ষানীতির প্রণেতাদের পাঠক্রমে সংবিধানকে যুক্ত করার অনুরোধ জানিয়েছেন। প্রতিটি বিভাগের ছাত্রছাত্রীরা এরফলে সংবিধানের সম্পর্কে ধারণা পাবেন। তিনি জাতীয় পতাকা ও জাতীয় সঙ্গীতকে সম্মান জানানোর ওপর গুরু্ত্ব দিয়েছেন।  

মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক (ডঃ) সৈকত মৈত্র বলেছেন, আমাদের দেশ গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে দৃঢ়ভাবে গ্রহণ করেছে। তবে দেশের বিপুল জনসংখ্যার কারণে কখনও এর অপব্যবহার হয়। এই প্রসঙ্গে তিনি সরকারের কোভিড-১৯ সংক্রান্ত আচরণবিধি সমাজের অনেকের মেনে না চলার প্রসঙ্গটি উল্লেখ করেছেন। তিনি বলেছেন, দেশের ভবিষ্যৎ নাগরিকদের তাদের অধিকারের কথা যেমন জানতে হবে আবার কর্তব্যের বিষয়টিও মনে রাখতে হবে। তিনি শিক্ষার অধিকারকে অগ্রাধিকার দেওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।  

ওয়েবিনারের শুরুতে কলকাতার পিআইবি ও আরওবি-র অতিরিক্ত মহানির্দেশক শ্রীমতি জেন নামচু অতিথিদের স্বাগত জানিয়ে আমাদের দেশের ইতিহাসে ২৬শে নভেম্বরের গুরুত্বের বিষয়টি উল্লেখ করেছেন।  

Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages