নন্দীগ্রামে নিজেকে নিয়ে জল্পনা জিইয়ে রাখলেন শুভেন্দু অধিকারী - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


নন্দীগ্রামে নিজেকে নিয়ে জল্পনা জিইয়ে রাখলেন শুভেন্দু অধিকারী

Share This

নন্দীগ্রামে নিজেকে নিয়ে জল্পনা জিইয়ে রাখলেন শুভেন্দু অধিকারী


আজ খবর (বাংলা), নন্দীগ্রাম, পূর্ব মেদিনীপুর, ১০/১১/২০২০ :  তাঁকে নিয়ে রাজনৈতিক জল্পনা  জিইয়ে রাখলেন শুভেন্দু অধিকারী। আজ ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটির ডাকে নন্দীগ্রামে সভা করলেন তিনি।

বেশ কিছুদিন ধরেই তৃণমূল কংগ্রেসের সাথে দূরত্ব বাড়াচ্ছিলেন রাজ্যেরই পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। নন্দীগ্রামের আন্দোলনের মাধ্যমেই রাজ্যে ক্ষমতায় এসেছিল তৃণমূল কংগ্রেস। আর সেই নন্দীগ্রাম আন্দোলনের মূল কান্ডারি ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। কিন্তু ক্ষমতায় এসে শুভেন্দুকে মন্ত্রী করলেও একটু একটু করে তাঁর গুরুত্ত্ব কমাচ্ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূল যুব সভাপতির আসনেও মমতা শুভেন্দুর গুরুত্ত্ব কমিয়ে তুলে এনেছিলেন নিজের ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে। 

উপেক্ষিত হতে থাকায় শুভেন্দুও কিছুদিন ধরে তৃণমূল দল থেকে নিজেকে দূরে সরাতে শুরু করেছিলেন একটু একটু করে।কিছুদিন ধরে তাঁর কোনো জনসভায় দেখা যাচ্ছিল না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি বা তৃণমূলের প্রতীক। রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় শুভেন্দু অধিকারীর নিজস্ব ছবি দিয়ে বড় বড় ব্যানার চোখে পড়ছিল। এই নিয়ে রাজনৈতিক মহলে যথেষ্ট জল্পনা তৈরি হয়েছিল। অনেকেই বলতে শুরু করেছিলেন, শুভেন্দু সম্ভবত তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেবেন, অথবা এ কথাও উঠছিল, তিনি হয়ত নিজেই কোনো পৃথক দল তৈরী করবেন। কিন্তু এই ব্যাপারে শুভেন্দু অধিকারী নিজে বা তাঁর পরিবার এতদিন মুখে কুলুপ এঁটেছিলেন।

এই বিষয়ে মুখ খোলেন নি তৃণমূলের কোনো নেতা। বিজেপিও ছিল চুপচাপ। আজ নন্দীগ্রামে ভূমি উচ্ছেদ কমিটির জনসভা ছিল, আবার পাল্টা নন্দীগ্রামেই আজ তৃণমূলও  পৃথক জনসভা করবে, যে সভায় উপস্থিত থাকবেন তৃণমূল নেতা ফিরহাদ হাকিম। এই জনসভায় কিন্তু শুভেন্দু অধিকারী উপস্থিত থাকবেন না। যে কারণে ফিরহাদ হাকিম বলেছেন, "শুভেন্দুর তৃণমূলের জনসভায় উপস্থিত থাকা উচিত ছিল।"

যত  জল্পনাই থাকে না কেন আজ কিন্তু নন্দীগ্রামের তেখালি জনসভা থেকে যাবতীয় বিতর্ক এড়িয়ে গিয়েও তা বজায় রাখলেন শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর জনসভায় আজ হাজারে হাজারে মানুষের ভীড় দেখে তিনি আপ্লুত হয়েছেন, বলেছেন, "এত ভীড় দেখে আমি আপ্লুত।এই আন্দোলন কোনো একজন মানুষের আন্দোলন নয়।" আজ তেখালিতে শুভেন্দুর জনসভায় উপস্থিত ছিলেন উত্তর কাঁথির বিধায়ক বনশ্রী মাইতি এবং আর এক বিধায়ক ফিরোজা বিবি। ফিরোজা বিবির ছেলে নন্দীগ্রামের আন্দোলনে শহীদ হয়েছিলেন।

আজ তেখালির মঞ্চ থেকে রীতিমত গর্জন করে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, "রাজনীতির মঞ্চে রাজনীতির কথা হবে। এই মঞ্চ রাজনীতির মঞ্চ নয়। লড়াইয়ের মাঠে দেখা হবে। শুভেন্দু কাউকে ভয় পায় না। আমি কোনোদিন ক্ষমতার জন্যে লড়াই করিনি।" এরপর তিনি বলেন, "১৩ বছর পর নন্দীগ্রামের কথা মনে পড়ল ? ভোটের পর আবার আসবেন তো ?" এই কথাগুলিই যথেষ্ট ইঙ্গিতপূর্ণ। এই কথাগুলি বলেই তাঁর সম্বন্ধে জল্পনা শুভেন্দু আরও উস্কে দিয়ে গেলেন।

Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages