কিষাণ রেল পরিষেবার মাধ্যমে বেশ কিছু সবজি ও ফলে ছাড় ৫০% - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


কিষাণ রেল পরিষেবার মাধ্যমে বেশ কিছু সবজি ও ফলে ছাড় ৫০%

Share This

কিষাণ রেল পরিষেবার মাধ্যমে বেশ কিছু সবজি ও ফলে ছাড় ৫০%


আজ খবর (বাংলা), নতুন দিল্লী, ভারত, ১৬/১০/২০২০ :  কিষাণ রেল পরিষেবার সাহায্যে কৃষকদের সহায়তা প্রদান এবং উৎসাহ যোগাতে রেলমন্ত্রক ও খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ শিল্প মন্ত্রক সুনির্দিষ্ট শাকসব্জি ও ফলমূল পরিবহন ক্ষেত্রে ৫০ শতাংশ ভর্তুকি প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ শিল্প মন্ত্রকের আওতাধীন ‘অপারেশন গ্রিনস-টপ টোটাল’ প্রকল্পের অন্তর্গত সুনির্দিষ্ট শাকসব্জি ও ফলমূল পরিবহন ক্ষেত্রে এই ছাড় মিলবে। ভর্তুকির অর্থ খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ শিল্প মন্ত্রক সরাসরি রেল মন্ত্রককে প্রদান করবে। ১৪ই অক্টোবর থেকে কিষাণ রেল পরিষেবায় এই ভর্তুকি কার্যকর হয়েছে।

যে যে শাকসব্জি ও ফলমূল সামগ্রী পরিবহন ক্ষেত্রে ছাড় মিলবে সেগুলি হল- 
 
 ফল- আম, কলা, পেয়ারা, লিচু, মৌসম্বি, কমলা, আনারস, লেবু, কাঁঠাল, আপেল, বাদাম, নাসপাতি, ডালিম ইত্যাদি।
 
 শাকসব্জি- ফ্রেঞ্চ মটরশুঁটি, বেগুন, ক্যাপসিকাম, গাজর, ফুলকপি, সবুজ লঙ্কা, ওকড়া, শসা, মটর, রসুন, পেঁয়াজ, আলু, টমেটো ইত্যাদি। ভবিষ্যতে কৃষি মন্ত্রক বা রাজ্য সরকারের সুপারিশের ভিত্তিতে অন্যান্য যেকোন ফল বা শাকসব্জি এর আওতায় যুক্ত করা হতে পারে।
 
কিষাণ রেল কৃষকদের এবং গ্রাহকদের সুবিধার্থে অল্প সময়ের মধ্যে দেশের একপ্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে কৃষি পণ্য পৌঁছে দেওয়ার বিষয়টি সুনিশ্চিত করেছে। ক্ষুদ্র চাষি এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়িদের জীবনে আমূল পরিবর্তন নিয়ে আসার পাশাপাশি প্রয়োজনীয় চাহিদা পূরণেও সাহায্য করেছে ও কৃষকদের আয় বৃদ্ধিতে বিশেষভাবে সাহায্য চালিয়ে যাছে।
 
চলতি বছরের ৭ই আগস্ট মহারাষ্ট্রের নাসিক থেকে বিহারের দানাপুর পর্যন্ত প্রথম কিষাণ রেল চালু করা হয়। কিন্তু কয়েক সপ্তাহের মধ্যে এই কিষাণ রেল এতটাই জনপ্রিয় হয়ে ওঠে এবং কৃষকদের দাবি মেনে এই রেল পরিষেবা বিহারের মজফ্ফরপুর পর্যন্ত সম্প্রসারণ করা হয়। একইসঙ্গে আগে সপ্তাহে একদিন চালানো হলেও এখন সপ্তাহে ২দিন এই রেল পরিষেবা চালু হয়েছে। কিষাণ রেলের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে অতিরিক্ত নতুন কামরাও। ৯ই সেপ্টেম্বর অন্ধ্রপ্রদেশের অনন্তপুর থেকে দিল্লীর আদর্শ নগর পর্যন্ত সাপ্তাহিক ভিত্তিক দ্বিতীয় কিষাণ রেল পরিষেবা চালু করা হয়েছে। ওই একই দিনে কর্ণাটকের বেঙ্গালুরু থেকে দিল্লীর হজরত নিজামুদ্দির পর্যন্ত সাপ্তাহিক ভিত্তিক  তৃতীয় কিষাণ রেল পরিষেবা চালু হয়। গতকাল মহারাষ্ট্রের নাগপুর ও ওয়ারুদ অরেঞ্জ সিটি থেকে দিল্লীর আদর্শনগর পর্যন্ত চতুর্থ কিষাণ রেল পরিষেবা চালু হয়েছে।
 
ভারতীয় রেল পণ্যবাহী এই ট্রেন চালানোর মাধ্যমে দেশের যেকোন প্রান্তে কৃষি পণ্য পৌঁছে দিতে নিরলস প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে। এমনকি লকডাউনের সময়ও ভারতীয় রেল মালবাহী ট্রেনগুলির সাহায্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছে। গম, ডাল, শাকসব্জি, ফলমূল বেশি পরিমাণে পৌঁছে দেওয়ার জন্য অতিরিক্ত রেক-ও যুক্ত করা হয়েছে।
Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages