FATF -এর কোপে পাকিস্তানের 'ব্ল্যাক লিস্ট' হওয়া শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


FATF -এর কোপে পাকিস্তানের 'ব্ল্যাক লিস্ট' হওয়া শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা

Share This

FATF -এর কোপে পাকিস্তানের 'ব্ল্যাক লিস্ট' হওয়া  শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা


আজ খবর (বাংলা),ইসলামাবাদ, পাকিস্তান, ২২/০৯/২০২০ :  আর এক মাসের মধ্যেই পাকিস্তানে ভয়ঙ্কর দুর্দিন আসতে  চলেছে। আগামী মাসের মধ্যেই FATF পাকিস্তানকে গ্রে লিস্ট থেকে নামিয়ে দেবে এবং 'ব্ল্যাক লিস্ট' বলে চিহ্নিত করতে  চলেছে। দুনিয়ার বিভিন্ন দেশ থেকে টাকা ধার করে জঙ্গীদের স্পনসর করার দিন এবার শেষ হতে চলল।

আন্তর্জাতিক আর্থিক অনুদান নিয়ন্ত্রক সংস্থা (FATF) অনেক দিন ধরেই পাকিস্তানকে সতর্ক করে আসছিল এবং পাকিস্তানের মাটিতে জঙ্গী কার্যকলাপ বন্ধ করার নির্দেশ দিয়ে আসছিল। FATF  দীর্ঘদিন ধরেইপর্যবেক্ষণ করে দেখেছে, আন্তর্জাতিক সংস্থা বা বিভিন্ন দেশ থেকে পাকিস্তান যে অনুদান ও ঋণ  পায় উন্নয়নের জন্যে, সেই বিপুল অর্থের বেশিরভাগ অর্থ উন্নয়নের খাতে খরচ না করে তারা খরচ করে তাদের জঙ্গীদের নিরাপত্তা দিতে এবং তাদের লালন পালন করতে। জঙ্গীদের মদত দেয় পাকিস্তান। 

ভারত সহ বিশ্বের বহু দেশ তথ্য প্রমাণ দিয়ে বার বার এই অভিযোগ করে এসেছিল পাকিস্তানের বিরুদ্ধে। FATF  এই বিষয়ে পাকিস্তানকে বার বার সতর্ক করেছিল। এমনকি এর আগেও কয়েকবার বলা হয়েছিল পাকিস্তানকে ব্ল্যাক লিস্টেড  জন্যে।  প্রত্যেকবার কোনো না কোনো বাহানা দিয়ে পাকিস্তান বেশ কয়েক মাস সময় আদায় করে নিত। এই বছরের বেশিরভাগ সময়টাই পাকিস্তান আদায় করে নিয়েছে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের নাম করে। কিন্তু শেষবার FATF  পাকিস্তানকে চরম সীমা  বেঁধে দিয়ে জানিয়ে দিয়েছিল, কোনোভাবেই আর সময় দেওয়া যাবে না। শেষবার দেওয়া সেই সময়সীমাও  শেষ হতে চলেছে আগামী মাসেই। 

গোটা বিশ্ব জানে, পাকিস্তান জঙ্গীদের আঁতুরঘর। জঙ্গী তৈরি করে পাকিস্তান, যার মাশুল গুনতে হয় গোটা পৃথিবীকে।  পাকিস্তানকে আর  সময় দিতে রাজি নয় FATF । এই সংস্থা এবার বেশ কড়া  মনোভাব নিয়েছে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে। ইতিমধ্যে পাকিস্তান তাদের দেশে জঙ্গী দমনের জন্যে কোনো ব্যবস্থায় নেয় নি। এর মধ্যে গত মাসের ২৮ তারিখে  শুধুমাত্র  আল হামাদ ট্রাস্ট গোষ্ঠীর (এই গোষ্ঠীর মাধ্যমেই পাকিস্তান জঙ্গীদের টাকা পাঠায়) সভাপতি  মালিক জাফর ইকবালকে ছয়  বছরের জেল  ও  সহ সভাপতি হাফিজ আবদুল  রাহমান মাক্কীকে  দেড় বছরের জন্যে জেলে পাঠিয়েছে লাহোরের আদালত। সঙ্গে রয়েছে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা।  



এ সবই  লোক দেখানো। কেননা , পাকিস্তানে বসবাসকারী অন্য জঙ্গীরা বহাল তবিয়তে ঘুরে বেড়ায়। আর এদের সংখ্যা কয়েক হাজারের মত। নাশকতায় হাত পাকানো এই জঙ্গীদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থাই  নেয়নি পাকিস্তান সরকার। যেমন দাউদ ইব্রাহিমের মত অমানুষ এখনো বিলাসবহুল জীবন কাটাচ্ছে পাকিস্তানে। খালিস্তান জিন্দাবাদ ফোর্সের জঙ্গী নেতা  রঞ্জিত সিং নিটা বেশ আরামেই রয়েছে পাকিস্তানে। মুম্বই নাশকতার মাস্টার মাইন্ড জাকি উর  রহমন  লাকভি, হাফিজ সৈদের মত জঙ্গী নেতারা বহাল তবিয়তে রয়েছে পাকিস্তানে, যাদের সুরক্ষার জন্যে পাকিস্তান প্রতি বছর কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা খরচ করে চলেছে। এই বিষয়গুলো চোখ এড়িয়ে যায় নি FATF -এর। 

এমনিতেই পাকিস্তানের আর্থিক পরিস্থিতি খুব খারাপ হয়ে রয়েছে। বিভিন্ন ইসলামিক দেশগুলি পাকিস্তানকে অনুদান দেওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। পাকিস্তানের উৎপাদন এবং রপ্তানি তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। বিভিন্ন ঋণের টাকা শোধ করতে শোচনীয়  অবস্থা তাদের। চীনের সাহায্য নিতে নিতে মাথা বিক্রি হয়ে গিয়েছে পাকিস্তানিদের। এরপর যদি FATF  পাকিস্তানকে ব্ল্যাক লিস্ট করে দেয়, তাহলে আন্তর্জাতিক কোনো সংস্থা এবং অন্য কোনো দেশ পাকিস্তানকে কোনোরকম অনুদান দিতে পারবে না। বিশ্বের প্রায় কোনো দেশ আর পাকিস্তানের সাথে বাণিজ্য করবে না। সেদিক থেকে অকুল পাথারে পড়বে  পাকিস্তান। কিন্তু নিজের গর্ত নিজেই খুঁড়েছে পাকিস্তান। যে পরিস্থিতির দিকে তারা এগিয়ে চলেছে। তাতে আর কিছুদিনের মধ্যেই তাদের ব্ল্যাক লিস্ট করবে FATF । যে দেশ বিগত কয়েক দশকে নিজেদের দেশকে সন্ত্রাস ও জঙ্গীমুক্ত করতে পারে নি, সেই দেশ এক মাসের মধ্যেও তা করতে পারবে না। 


Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages