আত্মনির্ভর ভারত গড়তে ধূপকাঠি শিল্পীদের সহযোগিতা করছে কেন্দ্র সরকার - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


আত্মনির্ভর ভারত গড়তে ধূপকাঠি শিল্পীদের সহযোগিতা করছে কেন্দ্র সরকার

Share This

আত্মনির্ভর ভারত গড়তে  ধূপকাঠি শিল্পীদের সহযোগিতা করছে কেন্দ্র সরকার


আজ খবর (বাংলা), নতুন দিল্লী, ভারত, ০৭/০৯/২০২০ :   সংশ্লিষ্ট  সবপক্ষের  স্বার্থ  সুরক্ষিত  রেখে  এক সুসংবদ্ধ প্রয়াসের অঙ্গ হিসাবে কেন্দ্রীয় অতিক্ষুদ্র, ছোট ও মাঝারি শিল্পোদ্যোগ মন্ত্রক ধূপকাঠি শিল্প এবং ধূপকাঠি বানানোর কাজে যুক্ত শিল্পীদের সহায়তায় গত ৪ঠা সেপ্টেম্বর নতুন নীতি-নির্দেশিকা জারি করেছে। 

মন্ত্রক গত ৩০শে জুলাই ধূপকাঠি শিল্প ও শিল্পীদের সহায়তায় যে কর্মসূচির সূচনা করেছে, তাতে শিল্প সংস্থাগুলির বিভিন্ন বিষয়ের সমাধানে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে, ধূপকাঠি বানানোর জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্র সরবরাহের পাশাপাশি, কাঁচামালের যোগান ও অন্যান্য প্রযুক্তিগত তথ্য সরবরাহের বিষয়গুলিকেও কর্মসূচিতে সামিল করা হয়েছে।উল্লেখ করা যেতে পারে, গত এক বছরে দেশে ধূপকাঠির চাহিদা লক্ষ্যণীয় হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। 

 নতুন এই কর্মসূচির মূল চারটি স্তম্ভ হ’ল –


• শিল্পীদের প্রশিক্ষণ, কাঁচামাল, বিপণন ও আর্থিক সুবিধার মাধ্যমে নিরন্তর সাহায্য দেওয়া।


• ধূপকাঠির সৌরভ ও প্যাকেজিং সহ বিকল্প কাঁচামাল যেমন – পুনর্ব্যবহারযোগ্য ফুল, কয়্যার পিচ, বাঁশের কাঠির মতো ক্ষেত্রে আরও সৃজনশীলতা আনার ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। এই লক্ষ্যে মন্ত্রক ইতিমধ্যেই কনৌজে ফ্লেবার অ্যান্ড ফ্রেগন্যান্স ডেভেলপমেন্ট সেন্টার স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে।


• মন্ত্রকের পরম্পরাগত শিল্পের পুনরুজ্জীবনের জন্য তহবিল কর্মসূচির আওতায় বিপণনের সুবিধা সহ ১০টি ক্লাস্টার স্থাপন করা হচ্ছে। ধূপকাঠি শিল্প ও শিল্পীদের স্বার্থে এ ধরনের শিল্প ক্লাস্টারগুলি গড়ে তুলতে প্রায় ৫০ কোটি টাকা খরচ ধরা হয়েছে। ক্লাস্টারগুলি পুরোদমে চালু হলে প্রায় ৫ হাজার ধূপকাঠি শিল্পীর স্থায়ী কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে এবং তাঁদের উপার্জন বাড়বে।


• দেশে ধূপকাঠি বানানো যন্ত্রের উৎপাদনের ক্ষেত্রে স্বনির্ভরতা অর্জনে আইআইটি এবং এনআইটি-গুলির সহযোগিতায় উৎকর্ষ কেন্দ্র গড়ে তোলা হচ্ছে। এই খাতে খরচ ধরা হয়েছে ২ কোটি ২০ লক্ষ টাকা।

গত ৪ঠা সেপ্টেম্বর ঘোষিত এই কর্মসূচির ফলে পূর্বের ২০০টির পরিবর্তে এখন থেকে ক্লাস্টারগুলিতে ৪০০টি স্বয়ংক্রিয় ধূপকাঠি বানানোর যন্ত্র দেওয়া হবে। স্বনির্ভর গোষ্ঠীগুলি এবং ব্যক্তি-বিশেষ এই যন্ত্র কাজে লাগাতে পারবেন। এদিকে ধূপকাঠি উৎপাদনের দিক থেকে ভারতকে আত্মনির্ভর করে তুলতে কর্মসূচির আওতায় আর্থিক সুযোগ-সুবিধার পরিমাণ বাড়িয়ে ৫৫ কোটি টাকার বেশি করা হয়েছে। এই অর্থ প্রায় ১ হাজার ৫০০ শিল্পীকে আর্থিক সহায়তা দিতে, ২টি উৎকর্ষ কেন্দ্র স্থাপনে এবং কনৌজে সুগন্ধী গবেষণা কেন্দ্র স্থাপনে খরচ করা হবে। এছাড়াও, আরও ৫ হাজার শিল্পী এই কর্মসূচির মাধ্যমে লাভবান হবেন। মন্ত্রকের অধীনস্ত স্বশাসিত সংস্থা খাদি ও গ্রামোদ্যোগ কমিশন ধূপকাঠি শিল্পী ও শিল্প সংস্থাগুলির সার্বিক উন্নয়নে এই কর্মসূচি রূপায়ণ করবে।

 

Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages