৪ দশক পর গুলি চলল ভারত-চীন সীমান্তে, টানটান উত্তেজনা - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


৪ দশক পর গুলি চলল ভারত-চীন সীমান্তে, টানটান উত্তেজনা

Share This

৪ দশক পর গুলি চলল ভারত-চীন সীমান্তে, টানটান উত্তেজনা


আজ খবর (বাংলা), লাদাখ, ভারত, ০৮/০৯/২০২০ : চার দশক পর ভারত-চীন সীমান্তে গুলি চলল। সীমান্ত থেকে থেকে গুরুত্বপূর্ণ কিছু খবর পাওয়া গিয়েছে। ভারত-চীন সংঘাতের মধ্যেই এবার গুলি চলল ভারত-চীন সীমান্তের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা অঞ্চলে।  এই ঘটনায়  চীন দায় চাপিয়েছে ভারতের ওপর।

চীন বেশ কিছুদিন ধরেই পূর্ব লাদাখের বেশ কিছু জায়গা দখলের উদ্দেশ্যে অন্যায়ভাবে ভারতীয় ভুখন্ডে ঢুকে পরছিল। এতদিন ধরে ভারতীয়  সেনাবাহিনী অত্যন্ত ধৈর্য্যের সাথে সংযম দেখিয়ে যাচ্ছিল। বার বার চীনা জওয়ানদের ঠেলে সীমান্তের ওপারে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছিল। কিন্তু চীনা সেনা বার বার একইরকম ভাবে অনুপ্রবেশ করে  ভারতীয় সেনাকে উস্কানি  যাচ্ছিল। এরপর গতকাল রাতে চীনা সেনারা চুপিসারে ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকে পড়ে  এবং একটি পাহাড় চূড়া দখল করতে গেলে সংঘাত  বেঁধে যায়। 

চীনা সংবাদ সংস্থা টাইমস তাদের সংবাদপত্রে আজ লিখেছে, "ভারত-চীন সীমান্তে দক্ষিণ প্যাংগং লেকের কাছে সেনপাও পাহাড় চূড়ায় ঢুকে পড়েছিল ভারতীয় সেনা, চীনা  সেনারা প্রতিবাদ করলে ভারতীয় সেনা গুলি চালিয়েছে। চীন গোটা দুনিয়ার  সামনে দিনের পর দিন মিথ্যা বলে চলেছে, তা করোনা ভাইরাস নিয়েই  হোক, প্রতিবেশী দেশের সীমান্ত নিয়েই হোক কিংবা নিজেদের দেশের  বিভিন্ন পণ্যের গুণমান নিয়েই  হোক।



গতকাল সংঘাত ছিল চীনা  ফৌজের পূর্বপরিকল্পিত। লাল ফৌজ চেয়েছিল ভারতীয় সেনাদের তাড়া করে ভারতীয় সীমান্তের অনেকটা ভিতরে ঢুকিয়ে  দিয়ে সীমান্তের অনেকটা জায়গা দখল করে নেওয়া। তারা চেয়েছিল গালওয়ান উপত্যকা পর্যন্ত দখল করে নিতে। এই জন্যে তারা প্রচুর লোহার রড নিয়েও এসেছিল। কিন্তু ভারতীয় বীর সেনাদের সামনে পড়ে  তাদের সমস্ত  ভেস্তে যায়, বিফল হয়ে প্রথমে চীনা জানাই আকাশে গুলি করেছিল, জবাবে গুলি চালায় ভারতও । এই মুহূর্তে সীমান্তে রয়েছে টানটান উত্তেজনা। প্রস্তুত রয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। 

বার বার ভারতীয় সেনাদের চ্যালেঞ্জ দিয়েও লাল ফৌজ হার মানতে বাধ্য  হচ্ছে, গোটা বিশ্বের সামনে  তাদের কাপুরুষতা প্রমাণিত হয়ে যাচ্ছে। তাদের ভীতু চেহারাটা দুনিয়ার সামনে উন্মুক্ত হয়ে যাচ্ছে। আর সেই কারণেই চীনকে বার বার দুনিয়ার সামনে ঝুড়ি ঝুড়ি মিথ্যা বলতে হচ্ছে। কিন্তু চীনের সব মিথ্যাই এক এক করে ধরা পরে যাচ্ছে। এই মুহূর্তে লাল ফৌজ প্রায় এক ঘণ্টা  ধরে নিজেদের মধ্যে বৈঠক করে চলেছে। আজ  ভারত-চীন সংঘাত সম্পর্কে জানানো হয়েছে প্রধানমন্ত্রী মোদীকে। দেশের নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালের সাথে বৈঠকে বসতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী। এদিকে ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর আজ  রওনা  হচ্ছেন রাশিয়ার উদ্দেশ্যে,  সেখানে গিয়ে তিনি চীনা বিদেশমন্ত্রীর সাথে বৈঠকে  বসবেন বলে জানা গিয়েছে।

এই মুহূর্তে চীনের রাষ্ট্রপতি শি  জিনপিং পড়েছেন বেশ ফাঁপরে, কেননা ভারতের বিরুদ্ধে চীন যদি আগ্রাসী মনোভাব নিয়ে এগোতে  চায়, তাহলে একে  তো শক্তিশালী ভারতীয় সেনাবাহিনীর সাথে  সম্মুখ সমরে .লড়াই করতে হবে। ভারতকে  ইতিমধ্যেই সমর্থন জানিয়ে রেখেছে বিশ্বের প্রায় সব শক্তিশালী  দেশ।  আবার যদি পিছিয়ে যেতে হয়,  তাহলে শুধু দেশের মধ্যেই যে শি  জিনপিং-এর মাথা হেঁট  হবে, তাই নয়, গোটা দুনিয়ার সামনেও মুখ পুড়বে । এদিকে হংকং থেকে একটি  খবর প্রকাশ্যে  এসেছে,  হয়েছে চীনা সেনাদের মনোবল তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে, চীনা সেনারা যুদ্ধ করতে আদৌ প্রস্তুত নয়।  এমনকি শত্রুর গুলি খাওয়ার চেয়ে নিজেদেরকেই গুলি করে আত্মহত্যা করার মত চীনা সেনার চিঠিও প্রকাশ্যে এসে গিয়েছে। মনোবলহীন এই সেনা লড়াই কিভাবে করবে ?

ভারতের তরফ থেকে বলা হয়েছে, ভারত কখনোই  দেশের সীমানা লংঘন করে না। ভারত কখনোই অন্য দেশের ভূখণ্ডের দিকে ফিরেও তাকায়  না। ভারত কখনোই প্রথমে গুলিও চালায় না। চীনই প্রথম গুলি চালিয়েছিল বলেই ভারতীয় সেনাকে তার জবাব দিতে হয়েছে। ভারত  জানিয়েছে, চীন যতই নিজেদের শক্তিশালী বলে দাবী করুক না কেন, ভারতীয় ভূখণ্ডের অখণ্ডতা রক্ষা করতে ভারত সর্বদা প্রস্তুত রয়েছে। এই মুহূর্তে বিশ্বের সব দেশের নজর রয়েছে  ভারত --চীন সংঘাতের দিকে। বারুদের সলতেতে আগুন লেগেছে, এই আগুন এখনই নিভিয়ে দিতে  না পারলে বিস্ফোরণ হবেই। সেক্ষেত্রে বিশ্ব জুড়েই যুদ্ধ অবশ্যম্ভাবী  হয়ে পড়বে।

Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages