ভারতীয় সেনাবাহিনীকে আরও শক্তিশালী করতে নতুন নপরিকাঠামো তৈরি করছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


ভারতীয় সেনাবাহিনীকে আরও শক্তিশালী করতে নতুন নপরিকাঠামো তৈরি করছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক

Share This

ভারতীয় সেনাবাহিনীকে আরও শক্তিশালী করতে নতুন নপরিকাঠামো তৈরি করছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক


আজ খবর (বাংলা),  নতুন দিল্লী, ভারত, ২৭/০৮/২০২০ :  চীনের সাথে সংঘাতের মধ্যেই ভারতীয় সেনাবাহিনীকে আরও সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করার জন্যে নতুন পরিকাঠামো গড়ে তোলা হচ্ছে। 

এতদিন ভারতের সেনাবাহিনীর তিন শক্তি, এয়ার ফোর্স, আর্মি এবং নেভিকে আলাদা আলাদা করে পরিচালিত করতে হত। এই তিন বিভাগের সর্বোচ্য পদাধিকার অফিসারেরা ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের সাথে আলাদা আলাদা করে কাজ করতেন। এই সমস্যার সমাধান করতে প্রথমেই প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফ থেকে চিফ ডিফেন্স স্টাফ পদটি তৈরি করা হয়েছিল। যে পদে এই মুহূর্তে রয়েছেন জেনারেল বিপিন রাওয়াত। দেশের প্রথম চিফ ডিফেন্স স্টাফ  সরকারের  নির্দেশ সাপেক্ষে দেশের সেনাবাহিনীর তিনটি বিভাগকেই পরিচালনা করেন। 

এবার সেনাবাহিনীর তিনটি বিভাগকেই  প্রতিরক্ষা মন্ত্রক দ্রুত নতুন পরিকাঠামো দিয়ে গড়ে তুলছে। যখন যুদ্ধ লাগে, তখন যে সময় ভারতীয় বায়ু সেনা আকাশে যুদ্ধ করছে, তখন স্থলেও সেনাবাহিনীর কিছু সাকড়িটার প্রয়োজন হয়ে পড়ে। সেই যৌথ কাজকর্মের প্রক্রিয়ায় যদি সাযুজ্য না থাকে তাহলে আকাশেই যুদ্ধ হোক অথবা স্থলভাগে, কোনো জায়গাতেই পরিকল্পনা অনুযায়ী লড়াই করা যায় না। পুরোন  অভিজ্ঞতা থেকে দেখা গিয়েছে এয়ার ফোর্স , আর্মি এবং নেভি এই তিন বিভাগের মধ্যেই একটা সাযুজ্য তৈরি করে রাখতে হয়, না হলে যুদ্ধের সময় পরিকল্পনামাফিক আক্রমন করতে অসুবিধা হয়। আর তার জন্যেই চাই সঠিক এবং উপযুক্ত পরিকাঠামো, যে পরিকাঠামো দিয়ে তিনটি বিভাগকেই নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। ভারত এখন সেই পরিকাঠামো তৈরি করতেই উঠে পড়ে লেগেছে।

দেশের চিফ ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত জানিয়েছেন, "এই নতুন পরিকাঠামো দ্রুত তৈরি করা হচ্ছে, এর জন্যে আলাদা করে কোনো নতুন কর্মী নিয়োগ করা হবে না। সেনাবাহিনীর মধ্যে থেকেই নিয়োগ করা হবে। সম্ভবত আগামী অক্টবর মাসের ৮ তারিখে প্রয়াগরাজে বায়ুসেনা দিবস  অনুষ্ঠানের দিন এই  ব্যাপারে সরকারিভাবে ঘোষণা করা হতে পারে।"

ঠিক হয়েছে, নতুন পরিকাঠামো দিয়ে ইন্ডিয়ান আর্মি সহযোগিতা করবে এয়ার ফোর্সকে, এয়ার ফোর্স সহযোগিতা করবে আর্মিকে। এয়ার ফোর্স সহযোগিতা করবে নেভিকে, নেভি করবে এয়ার ফোর্সকে। নেভি সহযোগিতা করবে আর্মিকে, আর্মি সহযোগিতা করবে নেভিকে। অর্থাৎ তিন বিভাগই একে  অপরকে সাহায্য করবে, এবং একটা সাযুজ্য বজায় রেখে কাজ করবে। যেমন এয়ার ফোর্সের যে বিমান ঘাঁটিগুলি রয়েছে, সেগুলিকে রক্ষা করার দায়িত্ব নেবে আর্মি। আর্মি যখন যুদ্ধ করবে তখন আকশপথে তাদের প্রত্যক্ষভাবে সাহায্য করবে এয়ার ফোর্স। যখন নেভি আক্রমন করতে এগোবে তখন এয়ার ফোর্স আকাশ থেকে তাদেরকে কভার করবে। আবার উপকূলে নেভি বন্দরগুলিকে সুরক্ষা দেবে আর্মি। এভাবেই একে অপরের সাথে মিলে গিয়ে কাজ করবে দেশের তিন সেনাবিভাগ। আর এই একসাথে কাজ করতে যাতে আলাদা আলাদাভাবে অনুমতি, বৈঠক বা অনুমোদন ইত্যাদির প্রয়োজন না হয়, তার জন্যেই প্রয়োজন একত্রিত একটি আলাদা পরিকাঠামো। ভারত সেই পরিকাঠামো গড়ে তুলতেই শুরু করেছে। 

আরও একটা ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, সেটা হল এয়ার ফোর্স ছাড়াও আর্মি এবং নেভি দুই বিভাগের কাছেই এয়ার ফোর্স থাকবে নিজস্বভাবে। অর্থাৎ এবার থেকে আর্মি বেসগুলিতেও থাকবে এয়ার ফোর্সের যুদ্ধবিমান, আবার নেভির যুদ্ধ জাহাজগুলিতেও থাকবে এয়ারফোর্সের যুদ্ধ বিমান, যাতে যে কোনো সময়, যেকোনোভাবে আক্রমন করতে অসুবিধা বা দেরি না হয়। নতুন যে পরিকাঠামো তৈরি করা হচ্ছে, তারই অধীনে থাকবে সেনাবাহিনীর ইন্টেলিজেন্স, গবেষণা  সহ অন্যান্য বিভাগগুলিও। এই পরিকাঠামো তৈরি হয়ে গেলে ভারতীয় সেনাবাহিনী আরও দক্ষ ও শক্তিশালী হয়ে উঠবে বলে মনে করা হচ্ছে। 

এর মধ্যেই খবর পাওয়া যাচ্ছে, ভারত এখন থেকে সব রকম যুদ্ধাস্ত্র এবং সামরিক সামগ্রী দেশের মধ্যেই প্রস্তুত করবে, যদি তেমন কোনো এমার্জেন্সি থাকে, তাহলেই একমাত্র অন্য দেশ থেকে আমদানি করা হবে। এতে দেশের সামরিক খরচও  অনেকটরা বাঁচবে। অবশ্য যে সব যুদ্ধাস্ত্রের অর্ডার আগেই দেওয়া হয়ে গিয়েছিল, সেইসব যুদ্ধাস্ত্র ভারত আমদানি করতেই থাকবে। যার মধ্যে যেমন ফ্রান্স থেকে আরও রাফায়েল যুদ্ধ বিমান আসবে। তেমনি রাশিয়া থেকেও আসবে যুদ্ধবিমান এবং ইজরায়েল থেকে আসবে অত্যাধুনিক স্বয়ংক্রিয় বন্দুক।  আমেরিকা থেকেও আসতে পারে কিছু যুদ্ধবিমান , বিভিন্ন  অস্ত্র এবং যুদ্ধের সামগ্রী।

Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages