তিব্বতের ওপর চীনের দাদাগিরি এখনো অব্যাহত - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


তিব্বতের ওপর চীনের দাদাগিরি এখনো অব্যাহত

Share This
আন্তর্জাতিক

আজ খবর (বাংলা), লশ, তিব্বত, ১৬/০৭/২০২০ : তিব্বতের ওপর চীনের দাদাগিরি এখনো অব্যাহত। গত মাসে  পূর্ব তিব্বতে ধরপাকড় চালিয়ে বেশ কিছু তিব্বতীকে চীন জোর করে সরিয়ে নিয়ে গেল নিজেদের ক্যাম্পে। 
'ফ্রি তিব্বত' নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা জানিয়েছে, গত ২৪শে জুন  পূর্ব তিব্বতের পাইয়ুল শহরতলির ডোল ইয়িং গ্রাম থেকে চীনা সেনারা ১৩ টি বাড়ি থেকে মোট ৬০ জন তিব্বতীকে ধরে নিয়ে গিয়ে নিজেদের শিবিরে রেখেছে। যেখানে এই ৬০ জনকে রাখা হয়েছে, সেই নবনির্মিত ভবনগুলোর ছাদে উড়ছে চীন প্রজাতন্ত্রের পতাকা, প্রত্যেকটি বাড়ির ঘরগুলিতে রয়েছে চীনা নেতাদের ছবি, বিশেষ করে রয়েছে চীন প্রজাতন্ত্রের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-এর ছবি।এই বাড়িগুলিতে তিব্বতিদের একরকম আটকে রাখা হয়েছে এবং জোর করে থাকতে বাধ্য করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে  ফ্রি টিবেট  সংস্থাটি ।
স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাটি জানিয়েছে, ২০১৮ থেকে ২০১৯ সালের মধ্যে চীন এভাবে মোট ৪০০টি তিব্বতি পরিবারকে পূর্ব তিব্বত থেকে  তুলে নিয়ে এসেছে এবং তাদের শিবিরে আটকে রেখেছে। এভাবেই ২০১৯ সালের জুলাই মাস পর্যন্ত পূর্ব তিব্বতের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে মোট ২,৬৯৩ তিব্বতীকে স্থানান্তরিত  করেছে চীন সরকার। অনেকেই মনে করছেন, পূর্ব তিব্বতের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে চীন কোনো নতুন পরিকল্পনা নিয়েছে, হয়ত সেখানে নতুন করে কোনো কিছুর নির্মাণ করা হতে পারে, যার জন্যে ধাপে ধাপে সেই অঞ্চলকে ফাঁকা করে দিতে চাইছে চীন সরকার।
১৯৫০ সালে চীন বলপূর্বক তিব্বত দখল করেছিল, সেই সময় তিব্বতের ধর্মগুরু দলাই লামা তিব্বত থেকে পালিয়ে ভারতে আশ্রয় নিয়েছিলেন, এখনো পর্যন্ত দলাই লামা ভারতের সন্মানীয় অতিথি হিসেবে বসবাস করেন হিমাচল প্রদেশের ধরমশালায়।  তিব্বতিরা চীনের এই অবৈধভাবে তিব্বতকে দখল করে নেওয়াকে কোনোভাবেই মেনে নেয় নি। গোটা বিশ্ব জুড়ে বিভিন্ন শহরে তিব্বতিদের চীনের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে দেখা যায়।
Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages