ভারতে শিল্প ব্যবসা বৃদ্ধি করতে বিশ্ব ব্যাঙ্ক আরও ৭৫০ মিলিয়ন ডলার দিচ্ছে - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


ভারতে শিল্প ব্যবসা বৃদ্ধি করতে বিশ্ব ব্যাঙ্ক আরও ৭৫০ মিলিয়ন ডলার দিচ্ছে

Share This
আন্তর্জাতিক

আজ খবর (বাংলা), নতুন দিল্লী, ভারত, ০৭/০৭/২০২০ : অতিক্ষুদ্র, ছোট ও মাঝারি শিল্পোদ্যোগগুলিতে নগদের প্রবাহ আরও বাড়ানোর লক্ষ্যে আপৎকালীন তহবিল সহায়তা কর্মসূচি কার্যকর করার লক্ষ্যে বিশ্ব ব্যাঙ্ক ও ভারত সরকারের মধ্যে আজ ৭৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। উল্লেখ করা যেতে পারে, কোভিড-১৯ সঙ্কটের ফলে ছোট ও মাঝারি শিল্পোদ্যোগের ওপর প্রতিকূল প্রভাব পড়েছে। 
ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প সংস্থাগুলির জন্য বিশ্ব ব্যাঙ্কের আপৎকালীন তহবিল সহায়তা কর্মসূচি ভারতে প্রায় ১৫ লক্ষ এ ধরনের শিল্প ক্ষেত্রকে বর্তমান প্রতিকূল পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করবে। সেই সঙ্গে, এ ধরনের শিল্প সংস্থাগুলির নগদ চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি, ঋণের আবশ্যকতাও মেটাবে।
আজ এই চুক্তিপত্রে ভারত সরকারের হয়ে স্বাক্ষর করেন কেন্দ্রীয় আর্থিক বিষয়ক দপ্তরের অতিরিক্ত সচিব শ্রী সমীর কুমার খারে এবং বিশ্ব ব্যাঙ্কের ভারতে নিযুক্ত নির্দেশক মিঃ জুনেদ আহমেদ। এই উপলক্ষে শ্রী খারে বলেন, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প সংস্থাগুলির ওপর কোভিড-১৯ মহামারীর বিরূপ প্রভাব পড়েছে। এর ফলে, জীবন-জীবিকার পাশাপাশি, কর্মসংস্থানের বিষয়টিও প্রভাবিত হয়েছে। এই প্রেক্ষিতে ভারত সরকার ব্যাঙ্ক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলিতে পর্যাপ্ত পরিমাণে নগদের পরিমাণ বাড়াতে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে। ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প সংস্থাগুলির জন্য বিশ্ব ব্যাঙ্কের আপৎকালীন তহবিল সহায়তা কর্মসূচিটি ব্যাঙ্ক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলিকে আরও বেশি পরিমাণে ঋণ সহায়তা দেওয়া ক্ষেত্রে উৎসাহিত করবে, যাতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প সংস্থাগুলির নগদের চাহিদা মেটানো যায় এবং বর্তমান সঙ্কট কাটিয়ে উঠে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে পারে।
উল্লেখ করা যেতে পারে, বর্তমানে দেশে কেবল ৮ শতাংশ ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প সংস্থার কাছে প্রচলিত প্রথা অনুযায়ী, ঋণ সহায়তা পৌঁছয়। বিশ্ব ব্যাঙ্কের এই কর্মসূচিটি আরও বেশি ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প সংস্থাকে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে ঋণ সহায়তার সুবিধা প্রদানে উৎসাহিত করবে। শ্রী জুনেদ আহমেদ বলেন, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প সংস্থা ভারতের অগ্রগতি ও কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়ে থাকে। তিনি আরও বলেন, কোভিড-১৯ পরবর্তী সময়ে ভারতে অর্থ ব্যবস্থার পুনরুদ্ধারে শিল্প ক্ষেত্রটি সুদূরপ্রসারী ভূমিকা নেবে।
বিশ্ব ব্যাঙ্ক ভারতের আপৎকালীন কোভিড-১৯ মোকাবিলায় তহবিল সংস্থানের জন্য ২.৭৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার সহায়তা দেওয়ার কথা ঘোষণা করে। এর মধ্যে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প সংস্থাগুলিকেও ঋণ সহায়তা দানের কথা বলা হয়। ইতিমধ্যেই বিশ্ব ব্যাঙ্কের পক্ষ থেকে গত এপ্রিল মাসে ভারতের স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে আপৎকালীন সহায়তার জন্য ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার দেওয়া হয়। এছাড়াও, গত মে মাসে দরিদ্র ও পীড়িত মানুষদের জন্য খাদ্যের সংস্থান তথা নগদ অর্থ সহায়তার লক্ষ্যে আরও ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার সহায়তা দিয়েছে।

Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages