"বঞ্চনার বদলা নিয়ে আগামী নির্বাচনে তৃণমূলই সরকার গড়বে" : মমতা বন্দ্যেপাধ্যায় - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


"বঞ্চনার বদলা নিয়ে আগামী নির্বাচনে তৃণমূলই সরকার গড়বে" : মমতা বন্দ্যেপাধ্যায়

Share This
রাজনীতি

আজ খবর (বাংলা), কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ, ২১/০৭/২০২০ :  আগামী ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে শেষ শহীদ দিবসে দলকে অনুপ্রাণিত করার চেষ্টা করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
আজ কালীঘাট থেকে ভার্চুয়াল শহীদ দিবসে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, "এবার ধর্মতলায় সভা করতে না পেরে খারাপ লাগছে, কিন্তু যেভাবে গোটা দেশে করোনা ছড়িয়ে  গিয়েছে, তাতে আর কিছু করার  ছিল না। আমাদের রোগের সাথে লড়তে হবে, রোগীর সাথে  নয়। আমাদের রাজ্যে অনেকেই প্রাণ হারিয়েছেন করোনা রোগে। তামোনাশ ঘোষ বা অবনী জোয়ারদারের মত অনেককেই আমরা হারিয়েছি। যে সব মানুষ করোনা মহামারীকে সামনে থেকে দাঁড়িয়ে প্রতিহত করতে সাহায্য করেছেন, এমন অনেক ডাক্তার, স্বাস্থ্য কর্মী, পুলিশ এবং অন্যান্য সরকারি কর্মীরাও আছেন যাঁরা করোনা রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন। তাঁদের সকলকে শ্রদ্ধা জানাচ্ছি।"
এরপর ১৩ জন শহীদকে শ্রদ্ধা ও সন্মান জানিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজনীতি নিয়ে বলতে শুরু করেন। মমতা বলেন, "প্রতি বছর আমরা ধর্মতলায় বিশাল জনসভা করি, এবছর করোনা আবহে তা আর কোনোভাবেই করা সম্ভব হল না। তবে আগামী বছর আমরা আরও বড়  করে ঐতিহাসিক শহীদ দিবস পালন করব, আর তার প্রস্তুতি এখন থেকেই শুরু করে দিতে হবে।" 
এরপর মমতা রাজ্যে উন্নয়নের সংক্ষিপ্ত বিবরণ তুলে ধরে বলেন, "আমাদের রাজ্যে এখন ১০ কোটি মানুষ বিনামূল্যে রেশন পাচ্ছেন। দেশে আর একটাও রাজ্য দেখিয়ে দিন, যেখানে এভাবে রাজ্য সরকার বিনামূল্যে রেশন দেয়। আমাদের শাসন থাকলে এভাবেই সারা জীবন রেশন পাবেন বিনামূল্যে, শুধু রেশন নয়, শিক্ষা ব্যবস্থা, স্বাস্থ্য পরিষেবা সব কিছুই পাবেন বিনামূল্যে। আমাদের রাজ্যে করোনা এবং আম্ফানের আবহেও চলছে উন্নয়নের জোয়ার। আমরা থেমে  থাকি নি।  কেন্দ্র সরকার আমাদের বঞ্চনা করেই চলেছে, নানান অসুবিধা থাকা সত্ত্বেও আমরা উন্নয়ন থেকে পিছিয়ে আসি নি। যতটা সম্ভব আমরা করে গিয়েছি। কেননা আমরা সবসময় মানুষের পাশে থাকি।"
ভার্চুয়াল সভায় মমতা বলেন, "দেশে এখন ভয়ের পরিবেশ তৈরি হয়েছে, কারোর কোনো কথা বলার স্বাধীনতা নেই।সবাই ভয়ে রয়েছে। করোনার আবহ তৈরি হলেও আমরা কিন্তু এখনো এনআরসি অথবা এনপিআর-এর আন্দোলন থেকে পিছিয়ে আসি নি। নাগরিকত্ব দেওয়ার আপনারা কে ? কেন্দ্রে আছেন বলে যা ইচ্ছে করে  যাবেন নাকি ? এখানে ভেদাভেদির রাজনীতি করার চেষ্টা করবেন না। আমাদের রাজ্যে বিরোধীরা উন্নয়নের কথা বলেন না। খালি বিনাশ আর সর্বনাশের কথা বলেন। লোকসভা ভোটে কয়েকটা আসন পেয়ে বিজেপি ভাবছে বিশ্বজয় করে ফেলেছে। আর তার জোরেই চতুর্দিকে গুন্ডামি, নোংরামি করে বেড়াচ্ছে। উত্তর প্রদেশে দেখুন কিভাবে মানুষকে ক্রীতদাস বানিয়ে রাখা হয়েছে, কারোর কোনো স্বাধীনতা নেই. সেখানে জঙ্গলরাজ চলছে আর কথায় কথায় এনকাউন্টার চলছে। বিহার, আসাম, ত্রিপুরা, ব্যাঙ্গালোর সর্বত্রই এক অবস্থা।"

মমতা আজ ভার্চুয়াল  সভায় বলেন, "কেন্দ্র সরকার রেল, কয়লা, এয়ার ইন্ডিয়া সব কিছু বিক্রি করে দিয়েছে। কোরোনার নাম করে  ডিএ , এম পি ল্যাড, বন্ধ করে দিয়েছে। কেন্দ্রে সরকারি কর্মীদের বলা হচ্ছে আগামী পাঁচ বছর মাইনে পাবেন না। অথচ আমরা হাজার অসুবিধা সত্ত্বেও এখানে ঠিকভাবে বেতন দিয়ে চলেছি, সরকারি কর্মীদের সব রকম সুবিধা দিয়ে যাচ্ছি। কেন্দ্র সরকার আমাদের সাহায্য করে নি। ওরা বার বার আমাকে অসম্মান করেছে, লাঞ্ছনা করেছে। আমিও একটা মানুষ। সাধারণ মানুষের জীবন কাটাতে আমারও ইচ্ছে করে। সিপিএম আমাকে অনেক মেরেছে। মেরে আমাকে ক্ষতবিক্ষত করেছে। তাও আমি ভয় পাই নি একটুও। আমি লড়াই করে গিয়েছি। এখন বিজেপিও তাই করে চলেছে। ৩৪ বছর ধরে শাসন করে চলা সিপিএমকে যদি আপনারা হারাতে পারেন, তাহলে বিজেপিত তুচ্ছ ব্যাপার। আগামী নির্বাচনে বিজেপির জামানত জব্দ হবে। ওরা চুরি করে আর ভোটের আগে টাকা দিয়ে ভোট কেনে। ওরা মানুষকে ঘুমোতে দেয় না। মনে রাখবেন, গুজরাট বাংলাকে শাসন করবে না। বাংলাকে বাংলাই  শাসন করবে। আমি কাউকে ভয় পাই না।"
দলের কর্মীদের চাঙ্গা করতে মমতা এদিন বলেন, "আপনারা কেউ টাকার বদলে ভোট দেবেন না। ওদের লম্ফ ঝম্প বন্ধ করতে রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করুন। যদি ওদের বিশ্বাস করেন তাহলে আপনার জীবন ও জীবিকা দুই শেষ হয়ে যাবে। বঞ্চনার বদলা নেবে বাংলা। ওরা জঙ্গলমহল, পাহাড় সর্বত্র অশান্তি লাগানোর চেষ্টা করে চলেছে। দিল্লী থেকে আমাকে ফোন করে একজন বলেছিলেন, ভাইস চ্যান্সেলরদের শো কজ করা হবে। আমি বলেছিলাম ভিসিদের গায়ে হাত দেওয়ার চেষ্টা করবেন না। যদি তা করেন। কাকে ছাত্র রাজনীতি বলে তা আমি দেখিয়ে দেব। তৃনমূল কংগ্রেসের ওপর ভরসা রাখুন। আগামী বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলই বাংলায় সরকার গড়বে"।
Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages