লক ডাউনের মেয়াদ বেড়ে ১৭ই মে - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


লক ডাউনের মেয়াদ বেড়ে ১৭ই মে

Share This
রাজ্য

আজ খবর (বাংলা), কলকাতা, ০১/০৫/২০২০ : দেশে লক ডাউনের মেয়াদ আরও ১৪ দিনের  দেওয়া হল; আগামী ৩ তারিখ পর্যন্ত ছিল লক ডাউনের মেয়াদ, এবার আগামী ৪ তারিখ থেকে লক ডাউনের মেয়াদ বাড়িয়ে করা হল আগামী ১৭ তারিখ পর্যন্ত। অর্থাৎ আগামী ১৭ই মে পর্যন্ত লক ডাউন চলবে ভারতবর্ষে।
ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পেলেও বৃদ্ধির হার কমেছে শুধুমাত্র লক ডাউন মেনে চলার কারণেই, দেশের বর্তমান পরিস্থিতি অনুযায়ী তৃতীয় রাউন্ডের লক ডাউনের মেয়াদ তাই আরও ২ সপ্তাহের জন্যে বাড়িয়ে দেওয়া হল। 
ইতিমধ্যে কেন্দ্র সরকার গোটা দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বিভিন্ন জেলাগুলিকে ৩ ভাগে ভাগ করেছেন, এই তিন ভাগ হল লাল অঞ্চল , কমলা অঞ্চল ও সবুজ অঞ্চল । 

লাল অঞ্চল / রেড জোন -  পশ্চিমবঙ্গে কলকাতা,  ,দক্ষিণ ২৪ পরগণা   উত্তর ২৪  পরগণা, হাওড়া,  পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, মালদহ, জলপাইগুড়ি, দার্জিলিং ও কালিম্পঙ।
কমলা অঞ্চল / অরেঞ্জ জোন - হুগলি, পশ্চিম বর্দ্ধমান,  পূর্ব বর্দ্ধমান, নদিয়া ও  মুর্শিদাবাদ।
সবুজ অঞ্চল / গ্রিন জোন - ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, বীরভূম, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর, কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ার।
কিসের ভিত্তিতে এই ভাগগুলি করা হয়েছে - 
রেড জোন - স্বাস্থ্যমন্ত্রকের গাইডলাইন অনুযায়ী, কোনো জেলায় যদি ১৫ তীর বেশি করোনা আক্রান্তের ঘটনা থাকে অথবা যতজন আক্রান্ত হয়েছিলেন, সেই সংখ্যা যদি ৪ দিনের কম সময়ে দ্বিগুন হয়ে যায়, তাহলে তাকে রেড জোনে ফেলা হবে. 
অরেঞ্জ জোন - যে জেলাগুলি থেকে গত ১৪ দিনে একজনও করোনা আক্রান্ত হননি, সেটা অরেঞ্জ জোন। 
গ্রিন জোন  -  যে জেলাগুলি থেকে গত ২১ দিনে একজনও করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন  নি, সেটা গ্রিন  জোন। 

কি কি বন্ধ থাকবে - 
কন্টেইনমেন্ট জন বা বিপজ্জনক এলাকা -  এই এলাকা পুরোপুরি বন্ধ থাকবে, এই এলাকার কেউ বাইরে আসতে পারবেন না, এই এলাকায় কেউ ভিতরে প্রবেশ করতে পারবেন না. প্রায় সবকিছুই বন্ধ থাকবে, শুধু অত্যাবশ্যকীয় দ্রব্য বাইরে থেকে পৌঁছে দেওয়া হবে.
রেড জোন - সাইকেল, অটো রিকশা, রিক্সা, ট্যাক্সি, বাস অর্থাৎ গন পরিবহন বন্ধ থাকবে। সেলুন, বিউটি পার্লার, শপিং কমপ্লেক্স, সিনেমা, হোটেল বন্ধ থাকবে। ২ জন যাত্রী নিয়ে ৪ চাকার গাড়ি ও একজন ২ চাকার মোটর সাইকেল চালাতে পারবেন। একাকী দোকানপাট খোলা থাকবে, ই কমার্স খোলা থাকবে, অত্যাবশ্যকীয় দ্রব্যাদির দোকান খোলা থাকবে। 
অরেঞ্জ জোন - ২ যাত্রী নিয়ে ট্যাক্সি চলতে পারে। এছাড়া রেড জোনের মত অন্যান্য দোকান খোলা থাকবে।
গ্রিন জোন - বাস চলতে পারে, তবে ৫০% যাত্রী নিয়ে। অন্য জেলায় যাবে না. পশ্চিমবঙ্গে গ্রিন জোন এলাকাগুলিতে মদ ও সিগারেটের দোকান খুলে দেওয়া হচ্ছে ৪ তারিখ থেকে। 

Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages