ঘন জনবসতিপূর্ণ জায়গাগুলিতে থাকা মানুষ কিভাবে করোনা মহামারীর মোকাবিলা করবেন : গাইডলাইন - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


ঘন জনবসতিপূর্ণ জায়গাগুলিতে থাকা মানুষ কিভাবে করোনা মহামারীর মোকাবিলা করবেন : গাইডলাইন

Share This
দেশের খবর

আজ খবর (বাংলা), নতুন দিল্লী, ১৪/০৪/২০২০ : দেশের ঘন জনবসতিপূর্ণ জায়গাগুলিতে থাকা মানুষ কিভাবে করোনা মহামারীর মোকাবিলা করবেন এবং কোরোনার সংক্ৰমণ রুখে দেবেন,  তা নিয়ে কেন্দ্র সরকারের বৈজ্ঞানিক উপদেষ্টা দল আজ একটি গাইডলাইন দিয়েছেন।
ঘনবসতিপূর্ণ অঞ্চলে কোভিড-১৯এর সংক্রমণের বিস্তার নিয়ন্ত্রণের জন্য ভারত সরকারের উপদেষ্টা প্রদানকারী প্রধান বৈজ্ঞানিক কার্যালয় সহজ নির্দেশিকা জারি করছে। বিশেষত, শৌচালয় বা সাধারণ স্নানাগার যেখানে এক সাথে অনেক মানুষ এই সুবিধা ভাগ করেন, সেই বিষয়টি এখানে বিশেষভাবে উল্লেখ করা হয়েছে।
প্রস্তাবিত এই পদক্ষেপের মূল লক্ষ্য হল স্যানিটেশন এবং স্বাস্থ্যকর বিষয়ে সাধারণ মানুষের অভ্যাস বাড়ানোর ওপর জোর দেওয়া এবং রোগের বিস্তার নিয়ন্ত্রণে ব্যাপকভাবে সহায়তা করতে পারে এমন কিছু বিষয়ের সুপারিশ করা। তাই গোষ্ঠী সম্প্রদায়ের বাসিন্দাদের নিয়মিত হাত ধোয়ার  অভ্যাস গড়ে তুলতে এ এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা দরকার। মহামারী সংক্রণ রোধে বিশ্বব্যাপী যে নির্দেশিকা জারি হয়েছে তাতে যথাযথ স্থানে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা দ্রুত তৈরি করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। সম্ভাব্য উচ্চ সংক্রমিত এলাকায় সরাসরি সংস্পর্শে আসা কোন ব্যক্তির শুধু পা ধুয়ে ফেললেই হবে না, প্রচুর পরিমাণে জল দিয়ে হাত ভালো করে ধুতে হবে। তবে এই হাত, পা ধোয়ার এমন ব্যবস্থা করতে হবে যাতে খুব সহজেই গোষ্ঠীর লোকেরা এই অভ্যাস গড়ে তুলতে পারেন। জনসাধারণ বা গোষ্ঠীর ব্যবহৃত এই শৌচালয়গুলিতে এমন ভাবে পা ধোয়ার ব্যবস্থা করতে হবে, যাতে জল অপচয় কম হয় এবং হাত ধোয়াও যায়। আরো কার্যকর ভাবে হাত ধোয়ার জন্য প্রয়োজনে জল কে ক্লোরিনেটিং করা যেতে পারে। সম্প্রদায়ের মধ্যে স্যানিটেশন এবং স্বাস্থ্যবিধি বজায় রাখার জন্য শৌচালয়গুলিতে ভাল অভ্যাস তৈরির একটি রূপরেখাও স্পষ্টভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। শৌচালয়গুলিতে সর্বদা ফেস-কভার বা মুখ ঢাকা এবং চটি ব্যবহারের সাথে সাথে হাত ধোয়া এবং সামাজিক-দূরত্ব বজায় রাখার মতো সাধারণ পদক্ষেপগুলিও তুলে ধরা হয়েছে। সরকারী স্থান এবং বাড়িঘর পরিষ্কার ও পরিচ্ছন্ন রাখতে জীবাণুনাশক ছড়াতে বলা হয়েছে।যারা এই রোগের সংক্রমণ প্রতিরোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন এমন সমস্ত সামনের সারির কর্মী এবং সাফাই কর্মীদের সম্পূর্ণ সহযোগিতার ওপর জোর দেওয়া হয়েছে।
ভারত সরকারকে উপদেষ্টা প্রদানকারী প্রধান বৈজ্ঞানিক কার্যালয়ের অধ্যাপক কে বিজয় রাঘভান  বলেছেন যে, কোভিড-১৯ মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সমগ্র ভারতীয়  আজ একত্রিত হয়েছে। আমাদের ধারাভির মতো ঘনবসতিযুক্ত জায়গা গুলিতে বিশেষ নজর দেওয়া দরকার। ভারত সরকারকে উপদেষ্টা প্রদানকারী প্রধান বৈজ্ঞানিক কার্যালয় এ জন্য বিশেষ নির্দেশিকা জারি করেছে। সাধারণ ব্যবহৃত শৌচালয়এবং স্নানের জায়গা গুলিতে নজর দিয়েছে। এমনকি গোষ্ঠী নেতৃবৃন্দ, এনজিও, কর্পোরেশন এবং অন্যান্য সংস্থাগুলিকে এই বিষয়গুলি বাস্তবায়নের জন্য এগিয়ে আসতে অনুরোধ করা হয়েছে।

Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages