আমরা বিজেপিকে বাংলায় রক্তের খেলা খেলতে দেব না : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


আমরা বিজেপিকে বাংলায় রক্তের খেলা খেলতে দেব না : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Share This
রাজনীতি

আজ খবর (বাংলা), সতীঘাট, বাঁকুড়া, পশ্চিমবঙ্গ, ১১/০২/২০২০ : দলের কর্মী সংগঠনকে আরও  চাঙ্গা করে তুলতে আজ বাঁকুড়ার সতী ঘাটে জনসভা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দলের তৃণমূল স্তরের কর্মীরাই যে দলের মূল সম্পদ আজ সেই কথাই উঠে এল তাঁর ভাষণে।
মমতা তাঁর ভাষণে আজ বার বার তাঁর দলের কর্মীদের মনোবল চাঙ্গা করতে একাধিক নিদান দিয়েছেন, কিভাবে চলতে হবে, কিভাবে জনসংযোগ রাখতে হবে, সংগঠনকে কিভাবে আরও জোরদার করতে হবে, কিভাবে বিরোধী দলের বিভিন্ন কার্যকলাপের মোকাবিলা করতে হবে তার সুস্পষ্ট নির্দেশ দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। 
একদিকে দিল্লীতে বিশাল জয়লাভের জন্যে আজ তিনি যেমন অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, ঠিক তেমন সিপিএম ও বিজেপিকে একহাত নিতে তিনি ছাড়েন নি, তিনি বলেছেন, "সিপিএমের মত একটা দল টাকার বিনিময়ে নিজেদের এভাবে যে সাইনবোর্ডে পরিণত করে ফেলবে, তা আমি ভাবতেও পারিনি। বিজেপির  টাকা, শক্তি সব কিছু নিয়েই ভরাডুবি হবে। বিজেপি ক্রমেই স্টেটলেস পার্টি হয়ে যাচ্ছে, সব রাজ্যেই তারা হারবে, শেষ পরাজয় তাদের হবে বাংলায়, আগামী একুশে। বিজেপি যেন মনে রাখে যে তাদের টাকার চেয়েও উলুধ্বনি, আজান, ধামসা মডেলের বোল, বাউল গানের দাম এখানে অনেক বেশি।"
মমতা বলেন, " মহারাষ্ট্রে, ঝাড়খণ্ডে, দিল্লীতে ওরা সব জায়গাতেই হেরেছে, উত্তর প্রদেশ আর কর্ণাটক ছাড়া ওদের হাতে আর কিছু নেই। ওরা ছাত্রদের  ওপর অত্যাচার করে, ওরা  মা বোনেদের ওপর অত্যাচার করে. বিএসএনএল, এয়ার ইন্ডিয়া, এলআইসি, রেল, বার্ন স্ট্যান্ডার্ড সবকিছু ওরা বেচে দিচ্ছে, গোটা দেশটাকেই ওরা  বেচে দিতে চাইছে।ওদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতেই হবে।"
পশ্চিমবঙ্গে নিজেদের সাফল্যের খতিয়ান তুলে ধরতে গিয়ে আজ মমতা বলেন, "কেন্দ্র আমাদের পাওনা টাকা দেয়না, তা সত্ত্বেও আমরা উন্নয়নের কাজ করে যাই, পশ্চিমবাংলায় অনেক অনেক কাজ আমরা করেছি, এখনো করে চলেছি। আমাদের রাজ্যের সবাই সরকারি প্রকল্পের সুবিধা পায়। গোটা দেশে যেখানে বেকারের সংখ্যা ৩৫% বেড়েছে সেখানে পশ্চিমবাংলায় বেকারের সংখ্যা কমেছে ৪০%, আমাদের রাজ্যে এখন প্রায় সাড়ে ১০ কোটি মানুষ বসবাস করেন, তার মধ্যে আমরা ৯ কোটি ১৩ লক্ষ মানুষকে ২ টাকা কিলো দরে চাল দিই। গ্রামীণ আবাস  যোজনা কিংবা গ্রামীণ সড়ক নির্মাণ যাই বলুন না কেন, পশ্চিমবঙ্গ এখন দেশের ১ নম্বর জায়গায় রয়েছে। একেকটা পরিবার অনেকগুলো করে সুবিধে পেয়েছে এখানে। দিল্লী আমাদের টাকা দেয় না, উল্টে আমাদের থেকে টাকা নিয়ে চলে যায়, তা সত্ত্বেও আমরা কাজ করে যাই।" 
বাঁকুড়া জেলা নিয়ে বলতে গিয়ে মমতা বলেন, "বাঁকুড়া - তারকেশ্বর রেলপথের সূচনা আমিই করেছিলাম রেলমন্ত্রী থাকার সময়, বাঁকুড়ার PHEকে এখানে আরও দ্রুত কাজ করতে হবে. এখানে জলের সমস্যাও শীঘ্রই মেটানো হবে। দিদিকে বলো প্রকল্পে আপনারা যা কিছু চেয়েছিলেন, আমি তার ৮০% কাজ করে দিয়েছি।"
এরপর, ফের রাজনীতির প্রসঙ্গে চলে আসেন মমতা, তিনি বলেন, "কিছু বাইরের লোক রাজ্যে এসে আপনাদের কিনে নিতে চেষ্টা করছে। জনগনের টাকা দিয়ে ওরা জনগণকেই বোকা বানাতে চাইছে। ওদের টাকা নেবেন না, ওদের ঢুকতে দেবেন না। ওদের বিশ্বাস করবেন না, ওরা সুঁচ হয়ে ঢুকে ফাল  হয়ে বেরিয়ে যাবে। আমরা বিজেপিকে বাংলায় রক্তের খেলা খেলতে দেব না। আপনাদের কাছে আধার কার্ড, প্যান কার্ড বা রেশন কার্ড চাইলে দেবেন না, যতক্ষণ  না আমি বলছি। এতদিন এই দেশে থাকার পর আমাকে কৈফিয়ত দিতে হবে কেন ? দেশের এতগুলো প্রধানমন্ত্রীকে ভোট দিয়েছেন, আর এখন এই প্রধানমন্ত্রী আপনি নাগরিক কিনা সেটা জানতে চাইছে ? আমাদের দলের প্রকৃত নেতা হল জোড়া ফুল, বিজেপির অপপ্রচারে ভয় পাবেন  না, ওরা মিথ্যা বলে, ওরা  কুৎসা করে।"
বিজেপিকে আক্রমন করে মমতা আজ বলেন, " মা দূর্গা, মা কালি, শ্রীকৃষ্ণ, শিব ঠাকুর বা শ্রী চৈতন্য যখন ছিলেন তখন বিজেপির জন্মই হয়নি,  যারা গান্ধীজিকে সরিয়ে দেয়, তাদের বিশ্বাস করতে হবে ? তোমরা কে ভাই ? উড়ে এসে জুড়ে বসে তোমরা আমাকে হিন্দু ধর্ম শেখাচ্ছ ?"
পরিশেষে কর্মীদের উদ্দেশ্যে মমতা বলেন, "যেদিন বিজেপি অপপ্রচার করবে, তার পরের  দিন আপনারাও মাইকে পাল্টা প্রচার করবেন, শুধুমাত্র মাধ্যমিকের দিনগুলিতে মাইক বাজবেন না, এতে পড়ুয়াদের অসুবিধা হয়। যদি কোনো স্বেচ্ছাসেবী আপনার এলাকায় এসে বলেন, আপনার মেয়ের বিয়েতে সাহায্য করব, তাহলে বুঝবেন ডাল মে কুছ কালা হ্যায়। আপনারা একটা করে ডায়রি রাখবেন আর কোথায় কি হচ্ছে, তা ডায়রিতে লিখে রাখবেন এবং আপনার এলাকার নেতাদেরকে সরাসরি রিপোর্ট করবেন। নিজেদের ফোনগুলোকে খুলে রাখবেন, যাতে মানুষ বিপদে পড়লে আপনাকে পাশে পায়; বেশি কাজ করলে শরীর ভাল থাকবে, বসে থাকলে শরীর বসে যাবে। মনে রাখবেন, বাংলা কখনও হারে না, বাংলা গোটা দেশের দায়িত্ব নেয় ,  গোটা দেশকে পথ দেখায়।"




Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages