মনে হয় না এসিড আক্রান্তদের গল্প বার বার বলতে হবে : দীপিকা পাড়ুকোন - আজ খবর । দেখছি যা লিখছি তাই । ডিজিটাল মিডিয়ায় অন্যতম শক্তিশালী সংবাদ মাধ্যম

Sonar Tori


মনে হয় না এসিড আক্রান্তদের গল্প বার বার বলতে হবে : দীপিকা পাড়ুকোন

Share This
বিনোদন

আজ খবর (বাংলা), মুম্বই, ০১/০১/২০২০ : আমার মনে হয় আমাদের বার বার এসিড আক্রান্তদের কাহিনী বলতে হবে না," ছপাক সিনেমাটি মুক্তির প্রাক্কালে এই বার্তাই  দিতে চাইলেন ছপাক ছবির মুখ্য অভিনেত্রী তথা ছবিটির প্রযোজক দীপিকা পাড়ুকোন। ছপাক ছবির গল্প নেওয়া হয়েছিল লক্ষী আগরওয়াল নামের একটি মেয়ের বাস্তব জীবনের একটি ভয়াবহ কাহিনী থেকে। লক্ষীকে কেউ এসিড ছুঁড়ে মেরেছিল, আর তাতে তার মুখটি পুড়ে গিয়েছিল, এই ঘটনার পর নরক যন্ত্রনায় কাটতে থাকে তাঁর জীবন, তবু তিনি  সমাজের সামনে হেরে যাননি। জীবনযুদ্ধে তিনি পরাজয় মেনে নেন নি, তাঁর জীবনী নিয়েই গড়ে উঠেছে ছপাক ছবিটি।  
ছবিতে লক্ষীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন দীপিকা পাড়ুকোন। পুড়ে যাওয়া মুখের মেক আপ নিয়ে যখন প্রথমবার দীপিকার ছবি প্রকাশ্যে এসেছিল তখনি আলোড়ন ফেলে দিয়েছিল তাঁর পোস্টার। ছপাক সম্বন্ধে বলতে গিয়ে দীপিকা পিটিআইকে বলেন, "একটা ছবি বানানোটাই এই ছবিটির উদ্দেশ্য নয়, এই ছবির মাধ্যমে আমরা  যে বার্তা সমাজকে দিতে চেয়েছি আসল হল সেটাই। আমার মনে হয় না, আমাদের বার বার এসিড আক্রান্তদের গল্প শোনাতে হবে, এই ছবিটি দেখার পর সমাজে নিশ্চয়ই একটা পরিবর্তন আসবে, যদি না আসে, তাহলে বুঝতে হবে সমাজের প্রতি খুব ভুল কিছু একটা হয়ে রয়েছে, যার পরিবর্তন দরকার।"
ছপাক ছবিটি  পরিচালনা করেছেন মেঘনা গুলজার,  প্রযোজনা করেছেন দীপিকা নিজেই। দীপিকা তাঁর এই প্রজেক্ট সম্বন্ধে বলেছেন, "এই ছবিটি প্রযোজনা করার জন্যে আমাকে দুবার ভাবতে হয়নি। এই ছবির সাফল্য নির্ভর করছে এর স্ক্রিপ্ট নয়, ছবিটির কাহিনীর ওপরেই।এই ধরনের ছবিতে প্রযোজনা এবং অভিনয় করতে পেরে আমি রীতিমত গর্ব অনুভব করছি।"

সৌজন্যে : PTI
Loading...

Amazon

https://www.amazon.in/Redmi-8A-Dual-Blue-Storage/dp/B07WPVLKPW/ref=sr_1_1?crid=23HR3ULVWSF0N&dchild=1&keywords=mobile+under+10000&qid=1597050765&sprefix=mobile%2Caps%2C895&sr=8-1

Pages